পূর্ব বর্ধমানের ভাতারের কৃষক বাজারে সরকারি নির্দেশিকা মেনেই আবার খোলা হলো তাঁত হাট

Subscribe Us

পূর্ব বর্ধমানের ভাতারের কৃষক বাজারে সরকারি নির্দেশিকা মেনেই আবার খোলা হলো তাঁত হাট



পূর্ব বর্ধমান:- করোনা ভাইরাস ও লকডাউনের জেরে দীর্ঘ ৬ মাস তাঁত হাট বন্ধ ছিল।লকডাউন শিথিল হয়েছে। ট্রেন পরিষেবা বন্ধ থাকলেও ধীরে ধীরে জনজীবন স্বাভাবিক হচ্ছে। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে প্রতিদিনই কোভিডে আক্রান্তের সংখ্যা। এর মাঝে সোমবার পূর্ববর্ধমানের ভাতার কৃষক বাজারে তাঁত হাট চালু হল।দুর্গা পুজোর আর মাস খানেক বাকী।অন্য বছর এই সময়ে তাঁত হাট কিংবা যেকোনো কাপড় বা পোষাকের দোকানে ভীড় গিজ গিজ করে।ভীড় ঠেলে দোকানে ঢোকায় দায় হয়ে পড়ে।কিন্তু এবছর যে আলাদা। অনেক কাঠ খড় পুড়িয়ে দোকান খুলেছে। ঝাপ উঠেছে ভাতারের কৃষক বাজারের তাঁত হাটে।কিন্তু ভীড় কোথায়, লোকজন কই।একেবারেই খদ্দের নাই।সোমবার অনেক আশা নিয়ে তাঁতিরা তাদের ভ্যারাইটিস শাড়ি সহ বিভিন্ন পোষাকের পসরা সাজিয়ে বসেন। কিন্তু কেনার লোক নাই।দিনভর মাছি তাড়িয়ে ব্যবসায়ীরা ঝাঁপ বন্ধ করেন।ভাতার কৃষক বাজারে প্রত্যেক সোমবার তাঁতবস্ত্রের হাট হত।করোনাভাইরাসের জেরে সেই তাঁত বস্ত্রের হাট প্রশাসনিক ভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।এদিন তাঁত হাট পুনরায় চালু হলো।
ব্যবসায়ী  শম্ভু সরকার জানান, দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার জন্য এলাকার মানুষ হয়তো এখনো জানেন না যে, ভাতার কৃষক বাজার হাট পুনরায় চালু হয়েছে। তাছাড়া মানুষজন বাড়ি থেকে বের হতে ভয় পাচ্ছেন।কোভিডের আতঙ্কে জেরবার সকলেই। তিনি জানান তাঁরা সরকারি নির্দেশিকা মেনেই এদিন তাঁত হাট খোলেন।আর এক ব্যবসায়ী প্রদীপ মণ্ডল বলেন, প্রথমে যখন তাঁত হাট চালু হয় তারপর থেকে হাটে প্রচুর মানুষের সমাগম হতো।বিক্রি বাটাও ভালো হত।কিন্তু এখন পুরোপুরি ৬ মাস টানা বন্ধ থাকায় এদিন একদমই লোকজন হাটে আসেন নি।

Post a comment

0 Comments