'সম্মান 'প্রকল্পের কাজ শুরু হল বর্ধমানে

Subscribe Us

'সম্মান 'প্রকল্পের কাজ শুরু হল বর্ধমানে



পূর্ব বর্ধমান:- সম্মান প্রকল্পের কাজ শুরু হল বর্ধমানে। বৃহস্পতিবার বাড়ি বাড়ি গিয়ে পুলিশ আধিকারিক ও কর্মীরা প্রকল্পের কার্ড ও একটি করে লিফলেট দিয়ে এলেন।ওই কার্ডেই পুলিশের হেল্প লাইনের মোবাইল নম্বর দেওয়া আছে। 
বাড়িতে থাকা একা নিঃসঙ্গ বয়স্কদের পাশে দাঁড়াতে অভিনব উদ্যোগ গ্রহণ করে পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ। গত ৯ সেপ্টেম্বর পুলিশ লাইনে ‘সম্মান’ নামে এই প্রকল্পের সূচনা হয়। উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন  আই জি বর্ধমান রেঞ্জ  ডি এল মিনা, পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধায়,অতিরিক্ত পুলিশ কল্যান সিংহরায় । 



জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কল্যাণ সিংহরায় বলেন আপাতত বর্ধমান শহরের ৩৫টি ওয়ার্ড থেকে ৫৮ জন একা নিঃসঙ্গ বয়স্কদের নিয়ে সম্মান প্রকল্প শুরু হয়েছে। এই ৫৮ জনকে একটি করে সম্মান কার্ড দেওয়া হচ্ছে। কার্ডে থাকছে একটি সর্বক্ষণের হেল্প লাইন নম্বর। হেল্প লাইনে ফোন করে তাঁরা বিভিন্ন রকম সাহায্য পাবেন জেলা পুলিশের মাধ্যমে। তিনি আরো বলেন নথিভুক্ত সদস্যদের প্রতি সপ্তাহে ফোন করে খবর নেওয়া হবে। মাসে একবার প্রতি সদস্যের বাড়িতে গিয়ে খোঁজখবর নেওয়া নেবেন পুলিশের আধিকারিকরা। এছাড়াও যদি কোন সদস্য শারীরিক সমস্যায় পড়েন তাহলে তাদের কাছে দ্রুত পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া হবে।চিকিৎসা সংক্রান্ত বিষয়ে বেশকিছু নার্সিং হোম, ওষুধের দোকান প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। এছাড়াও তাদের নিরাপত্তার দিকটি খেয়াল রাখা হবে। 



পেশাগত কারণে বা অন্য কোন কারণে পরিবারের  অনেক সদস্যই বাইরে থাকেন। ফলে বাড়িতে একা পড়ে যান প্রবীণ মানুষরা। তাঁরা বিভিন্ন সময়ে নানারকম সমস্যার মুখোমুখি হন। সেটা শারীরিক সমস্যাই হোক বা  আইনগত। এই সব সমস্যা মেটানোর জন্যই এই প্রকল্পের মাধ্যমে তাঁদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবে জেলা পুলিশ প্রশাসন।



এদিন সম্মান প্রকল্পের কার্ড হাতে পেয়ে আপ্লুত শহরের বীরহাটা কালিতলার প্রবীণ নাগরিক মীরা সাহানা।তিনি বলেন, বাড়িতে কেউ থাকে না। সবাই কাজের জন্য বাইরে থাকে।পুলিশ কার্ডের পাশাপাশি একটি লিফলেট দিয়ে গেলো। কার্ডেই পুলিশের হেল্প লাইন নম্বর দেওয়া আছে।তিনি বলেন এটা আমাদের মানুষের খুব সুবিধা হবে।প্রবীণ নাগরিক জয়শ্রী যশ বলেন, তিনিও আজ এই সম্মান প্রকল্পের কার্ড হাতে পেয়েছেন। এই কার্ড হাতে পেয়ে সকলেই খুব খুশী।

FOLLOW US AT:-





Post a comment

0 Comments