বিজেপি নেত্রীর পরিবারের সদস‍্যদের মারধরের অভিযোগ উঠল শাসকদলের বিরুদ্ধে

Subscribe Us

বিজেপি নেত্রীর পরিবারের সদস‍্যদের মারধরের অভিযোগ উঠল শাসকদলের বিরুদ্ধে



বিজেপি নেত্রীর পরিবারের সদস‍্যদের মারধরের অভিযোগ উঠল শাসকদলের  বিরুদ্ধে পরিবারের অপর এক বধূ জ্যোস্না দাসকে ছুরির বাট দিয়ে মেরে মাথা ফাটিয়ে হয় বলে অভিযোগ। তাছাড়া আরো অভিযোগ দুষ্কৃতিরা জ্যোস্নাদেবীকে তুলে নিয়ে যাওয়ারও চেষ্ঠা করে। সেই সময় তার স্বামী বাসুদেব দাস বাধা দিতে গেলে তাকেও মারধর করা হয়। এই ঘটনায় তুমুল উত্তেজনা ছড়ায় পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের অমরপুর গ্রামে। খবর পেয়ে পুলিস ঘটনাস্থলে গেলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।
ঘটনার সূত্রপাত মাস খানেক আগে। অমরপুরের বাসিন্দা আউশগ্রামের ৫২ নম্বর মণ্ডল কমিটির সহ সভাপতি শর্মিলা দাসের বাড়িতে হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতি। এনিয়ে তৃণমূল ও বিজেপি উভয়পক্ষই থানার দ্বারস্থ হয়ে একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে। এরপর থেকেই রাজনৈতিক রেষারেষিতে গ্রামে উত্তেজনার পারদ চড়ছিলো। তারপর রবিবার গভীররাতে শর্মিলাদেবীর বাড়ি লক্ষ্য করে ব‍্যাপক ঢিলছোড়া হয় বলে অভিযোগ। এতে শর্মিলাদেবীর দেওর বাসুদেববাবুর বাড়ির জানালার কাঁচ ভেঙে যায়। বিষয়টি সোমবার সকালে থানায় জানিয়ে আসার পর তৃণমূল কংগ্রেস আশ্রিত  দুষ্কৃতিরাই দুপুরে আবার হামলা চালায় বলে অভিযোগ শর্মিলাদেবীর। তিনি বলেন, তৃণমূলের লোকজন আমার জা'কে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে দেওর তাতে বাধা দেয়। তখনই তাদের দু'জনকে ব‍্যাপক মারধর করা হয়। এরপর জা'কে চিকিৎসার জন‍্য আমরা বননবগ্রাম ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে আসি। আমি গোটা ঘটনার কথা পুলিশকে জানিয়েছি।
যদিও এই ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির কোনও সর্ম্পক নেই বলেই দাবি করেছেন অমরপুর অঞ্চল তৃণমূলের সভাপতি গোলাম শেখ। তিনি বলেন, এটি সম্পূর্ণ পারিবারিক ঝামেলা। এরসঙ্গে তৃণমূল বিজেপির কোনও ব‍্যাপার নেই।

Post a Comment

0 Comments

close