রাস্তা, সরকারি জায়গা অনির্দিষ্টকালের জন্য আটকে রাখা যায় না, শাহিনবাগ নিয়ে মন্তব্য শীর্ষ আদালতের

Subscribe Us

রাস্তা, সরকারি জায়গা অনির্দিষ্টকালের জন্য আটকে রাখা যায় না, শাহিনবাগ নিয়ে মন্তব্য শীর্ষ আদালতের




ওয়েবডেস্ক,news24x7:- দিল্লির শাহীন বাগে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) এর প্রতিবাদ বিক্ষোভের বৈধতার বিরুদ্ধে রায় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।আদালত বলেছে যে শাহীনবাগ বা অন্য কোনও জায়গা হোক না কেন জনসমাগমে অনির্দিষ্টকালের বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হতে পারে না।নির্ধারিত জায়গায় প্রতিবাদ করা উচিত।আদালত আরও জানিয়েছে যে, সংবিধানের আওতায় প্রতিবাদের অধিকার নিশ্চিত হওয়া সত্ত্বেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদনের পরে বিক্ষোভ নির্দিষ্ট স্থানে দেখাতে হবে। পাবলিক প্লেস দীর্ঘদিন দখল করে রাখা চলবে না।আদালত, অ্যাডভোকেট অমিত সাহনীর একটি আবেদনের ভিত্তিতে রায় দিয়েছে। আবেদনকারী দিল্লির শাহিনবাগ অঞ্চলটিতে রাস্তা পরিষ্কার করতে দিল্লি পুলিশ ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যর্থতার অভিযোগ করেছেন।তিনি তাঁর অভিযোগে বলেছিলেন, দিল্লি রাজধানী এলাকা থেকে দেশের বিভিন্ন অংশের যোগাযোগের মূল রাস্তাটিই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল এই প্রতিবাদের সময়।যার জেরে লক্ষ সাধারণ মানুষকে অসুবিধার মধ্যে পড়তে হয়। প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে, কেন্দ্রীয় সরকার সংসদ থেকে নাগরিকত্ব সংশোধন আইন পাস করে।যার অধীনে পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আগত ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব দেওয়ার বিধান করা হয়েছিল। এই আইন ধর্মের ভিত্তিতে বিতরণ করা হয়েছে বলে দাবি করে দিল্লি থেকে শাহীনবাগ পর্যন্ত দেশের অনেক জায়গায় বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। শাহীন বাগে ডিসেম্বর থেকে মার্চ পর্যন্ত বিক্ষোভ হয়। বুধবার এই বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টে শুনানি হয়। সুপ্রিম কোর্ট বলেছে যে, সরকারী জায়গা এবং রাস্তাগুলি অনির্দিষ্টকালের জন্য দখল করা যায় না।বিক্ষোভগুলি কেবলমাত্র নির্ধারিত স্থানেই হওয়া উচিত।আদালত আরও বলেছে যে জনসভা নিষিদ্ধ করা যাবে না তবে তা হবে নির্দিষ্ট জায়গায়।যাতায়াত অনির্দিষ্টকালের জন্য আটকে রাখা যায় না।'কোন পরিস্থিতিতে প্রশাসন হস্তক্ষেপ করবে তা তাদের ব্যাপার। এর জন্য আদালতের অপেক্ষা তারা করতে পারে না।প্রশাসনের উচিত যাতায়াতকারীদের জন্য রাস্তা খোলা রাখা।'করোনা অতিমারীর জন্য জায়গা খালি হয়েছে। পাবলিক প্লেসে এই ধরনের অবস্থান গ্রহণযোগ্য নয়।


Post a Comment

0 Comments

close