মদ্যপানে বাধা পেয়ে স্ত্রীকে নৃশংসভাবে খুন করে পলাতক স্বামী

Subscribe Us

মদ্যপানে বাধা পেয়ে স্ত্রীকে নৃশংসভাবে খুন করে পলাতক স্বামী



মদ্যপানে বাধা পেয়ে স্ত্রীকে নৃশংসভাবে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রাম থানার পূর্বতটী গ্রামে। নিহত বধূর নাম ভৈরবী আঁকুড়ে(৪০)। পূর্বতটী গ্রামেই তার বাপেরবাড়ি। বুধবার রাতে ভৈরবীদেবীকে মেরে চম্পট দেয় তার স্বামী বুধন আঁকুড়ে।বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তার হদিস মেলেনি।
পূর্বতটী গ্রামের পূর্বপাড়ার বাসিন্দা বুধন আঁকুড়ের সঙ্গে ওই গ্রামেরই মাঝেরপাড়ার মেয়ে ভৈরবীর বিয়ে হয়। তাদের দুটি সন্তানও রয়েছে। মৃত বধূর ভাই ভৈরব আঁকুড়ের অভিযোগ, মদ খেয়ে এসে তার দিদিকে প্রায়ই মারধর করত জামাইবাবু বুধন। বুধবার  রাতে একই অবস্থায় বাড়ি ফেরার পর ভৈরবীদেবী প্রতিবাদ করলে ভারী কিছু দিয়ে  মাথায় আঘাত করে।রাতেই গুরুতর জখম অবস্থায় ভৈরবীকে বননবগ্রাম ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসার জন‍্য নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে ভোর রাতে ভৈরবীকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে।এরপরই ভৈরবীর পরিবারের তরফে আউশগ্রাম থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হয়।অভিযুক্তকে খুঁজছে পুলিশ।

Post a comment

0 Comments