পুরষা ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের সামনে লরির ধাক্কায় মৃত্যু হলো এক সিভিকের

Subscribe Us

পুরষা ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের সামনে লরির ধাক্কায় মৃত্যু হলো এক সিভিকের







কর্তব্যপালন করতে গিয়ে প্রাণ হারালেন এক তরুণ সিভিক ভলেন্টিয়ার।এই ঘটনায় শোকের ছায়া পূর্ব বর্ধমানের গলসী থানার পুরষা গ্রামে।গলসীর পুুরষায় দশচাকা ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পিষে দিল এক কর্তব্যরত সিভিক ভলেন্টিয়ারকে। দুর্ঘটনার জেরে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সিভিক ভলেন্টারের। মৃত ওই সিভিক ভলেন্টার এর নাম মান্তু দাঁ। বয়স  ত্রিশ বছর। বাড়ি গলসী থানারই রামপুর গ্রামে। প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে জানা গেছে, বুধবার সকালে সহকর্মী সুমন দাস ও মিঠুন বাগ্দীর সাথে তিনি গলসি এক নম্বর ব্লকের পুরষা হাসপাতালে ডিউটি করছিলেন। সকালে হাসপাতালে আগত রোগী ও রোগীর আত্মীয়দের রাস্তা পারাপারের জন্য তিনি রাস্তার কাটিং এর মাঝ ট্রাফিকের  ডিউটি পালন করছিলেন। ওই সময় বর্ধমান থেকে আগত একটি বাস পিছনে থাকা একটি ট্রাককে সাইড করে হাসপাতালে আচমকা ব্রেক কষে স্টপেজ দেয়। 


যার ফলে বাসের পিছনে থাকা ওই দশচাকা ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার কাটিং এর মাঝে ডিউটি অবস্থায় তাকে পিষে দিয়ে রাস্তার ডান দিক ধরে দুর্গাপুরের দিকে পালিয়ে যায়। তারপর সামনে কিছুদুর গিয়ে পুরষার মাঝেরপুলের কাছে আবার একটি ট্রাককে মুখোমুখি ধাক্কা মারে। ঘাতক গাড়ি ও চালককে আটক করে গলসী থানার পুলিশ। এলাকাবাসীদের থেকে জানা গেছে, মান্তু  খুব    দায়িত্বপরায়ণ কর্মী ছিলেন। তিনি যেখানেই দায়িত্ব পালন করতেন সেখানেই মানুষকে হাত ধরে রাস্তা পারাপার করতে সহায়তা করতেন। মানু‌ষের জন্য কাজ করেই আজ চলে গেলো তার প্রাণ। এমন ঘটনার জেরে পুলিশমহল সহ এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া। ঘটনার তদন্ত করছে গলসী থানার পুলিশ।







Post a Comment

0 Comments

close