বর্ধমান শহরের প্রাণকেন্দ্র সহ নানা এলাকায় পোস্টার পড়ল শুভেন্দু অধিকারী নামে

Subscribe Us

বর্ধমান শহরের প্রাণকেন্দ্র সহ নানা এলাকায় পোস্টার পড়ল শুভেন্দু অধিকারী নামে


পূর্ব বর্ধমান জেলার নানা এলাকায় দাদার অনুগামী নামে পোস্টার পড়ার পর আবারো এক চমক।আজ বর্ধমান শহরের প্রাণকেন্দ্র সহ নানা এলাকায় পোস্টার পড়ল শুভেন্দু অধিকারী ফ্যান ক্লাবের নামে।স্বাভাবিকভাবেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে জেলার রাজনৈতিক মহলে।শাসক দলের মুখপাত্র এটা বিজেপির কারসাজি বলে উড়িয়ে দিয়েছেন।অন্যদিকে বিজেপির দাবি সম্মান না পাওয়া লোকেরা এটা করছে।গত কদিন ধরে জেলার নানা এলাকায় ইতিউতি শুভেন্দু অধিকারীর সমর্থনে পোস্টার পড়ছে।দাদার অনুগামীদের পর এবার শুভেন্দু অধিকারী ফ্যান ক্লাবের নামে পোস্টার পড়ল শহর বর্ধমানে। বর্ধমানের বাদামতলা মোড়, কার্জন গেট চত্বর, কোট কম্পাউন্ড চত্বর, স্টেশন বাজার, পারবীরহাটা সহ শহরের বিভিন্ন চত্বরে এই পোস্টার লাগানো হয়েছে। পোস্টারে রবীন্দ্রনাথের কবিতার বিভিন্ন পংক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। কিছুদিন আগেই শহরের বিভিন্ন এলাকায় দাদার অনুগামী বলে পোস্টার লাগানো হয়। এমনকি মেমারি বিধানসভার রসুলপুরে 'দাদার অনুগামী'রা রাস্তায় নেমে মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ করে। এরপর আজ শুভেন্দু অধিকারী ফ্যান ক্লাবের নামে পোস্টার পড়ায় স্বভাবতই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর। তৃণমূলের অভিযোগ বিজেপির রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে বিভিন্ন অ্যাড এজেন্সি দিয়ে রাতের অন্ধকারে এই কাজ করছে। যদিও বিজিপির  পাল্টা অভিযোগ তৃণমূলের একাংশ দুর্নীতি স্বজনপোষণের বিরোধিতা করে দলের মধ্যে রুখে দাঁড়াচ্ছেন তারাই এই পোস্টার লাগিয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা মুখপাত্র প্রসেনজিৎ দাস জানান; এমন গুরুত্বপূর্ণ কেউ হননি যে তার ফ্যান ক্লাব হবে। এখানে সবাই দিদির অনুগামী। দাদার অনুগামী কেউ নেই। এসব পয়সা দিয়ে লোক লাগিয়ে বিজেপি করাচ্ছে।অন্যদিকে বিজেপির নেতা শ্যামল রায়ের দাবি তৃণমূলের সম্মান না পাওয়া কর্মীরা একাজ করছে। ওই দলের শেষ লগ্ন এসে গেছে। তাই এসব ঘটছে।



Post a comment

0 Comments