নাম না করে শুভেন্দু ও বিজেপি কে তীব্র আক্রমণ সুজাতার

Subscribe Us

নাম না করে শুভেন্দু ও বিজেপি কে তীব্র আক্রমণ সুজাতার



কদিন আগেই মুকুল রায় যেখানে সভা করেছিলেন আজ সেখানেই পালটা সভা করল পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল কংগ্রেস। সাতগেছিয়ায় আজ এই পালটা সভায় তৃণমূলের তুরুপের তাস ছিলেন সদ্য বিজেপি ত্যাগী সুজাতা মন্ডল খাঁ।  আজ সাতগেছিয়ার এই সভায় দলের জেলা সভাপতি মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ সহ অন্যরা থাকলেও মূল আকর্ষণ ছিলেন সুজাতা। এদিন সুজাতা ছিলেন দারুণ আক্রমণের মুডে। একের পর এক কথার মাধ্যেম আক্রমণ করেন তার স্বামী সৌমিত্র খাঁ থেকে শুভেন্দু অধিকারীকে। তার আক্রমণের লক্ষ্য ছিলেন বিজেপি নেতারাও। এদিন সুজাতা বলেনঃ প্রচুর পদ পেয়েছেন শুভেন্দু ও তার পরিবার। ১০ বছর সব ক্ষমতা ভোগ করেছেন। তারপর মুখ্যমন্ত্রী হবার স্বপ্ন পূরণ হবে না দেখে বিজেপিতে ঝাঁপ মেরেছেন। তিনি নিজে একাধিক দপ্তরের মন্ত্রী ; চেয়ারম্যান। তার পরিবারে  প্রায় সবাই নানা পদে। আর কি বাকি ছিলো? এমনকি যুব সভাপতিও ছিলেন। যিনি বলেছেন হরেকৃষ্ণ হরে হরে; বিজেপি ঘরে ঘরে। সুজাতার পালটা আওয়াজ ; তোমার ঘরেই তো তৃণমূল ভরে ভরে।তিনি বলেন বিজেপির খানে কা দাত আর দিখানে কা দাত আলাদা।নইলে একজন সাংসদ তার স্ত্রীকে ডিভোর্স দেবার ঘোষণা করলেন।দলে তো অনেক বড় নেতা আছেন; তারা কি করলেন?  নারীদের সম্মান  ওই দলে নেই বলেই তিনি বিজেপি ছেড়েছেন দাবি করেন সুজাতা। তিনি বলেন ; কোন সাবানে সারদা নারদার মত কেলেঙ্কারির সাথে যুক্তরা বিজেপিতে গিয়ে শুদ্ধ হয়ে যাচ্ছেন। রাম বিজেপির একার সম্পদ ; এটা কি রামায়ণে লেখা আছে? তিনি বলেন বিজেপি ভুলক্রমে এ রাজ্যে ক্ষমতায় এলে মেয়েদের সম্মান বলে আর কিছু থাকবেনা। তাই যে দলে মেয়েদের সম্মান দেওয়া হয় ; সেই তৃণমূলকেই ভোট দিন। বিজেপি যেন কোনো ভোট না পায়। বিজেপি আর তৃণমূলের সভা আর পালটা সভার নাটকে জমে উঠেছে। আজ পূর্ব বর্ধমানের সাতগেছিয়ায় সুজাতা মন্ডলকে এনে আর  এক চমক দিতে চাইলো তৃণমূল। কদিন আগেই যে জেলা থেকেই এক সাংসদ  আর দুই বিধায়ক উড়ে গেছেন বিজেপির ঘরে।

Post a Comment

0 Comments

close