আউশগ্রামের সভা থেকে বিজেপি কে চ্যালেঞ্জ অনুব্রতর

Subscribe Us

আউশগ্রামের সভা থেকে বিজেপি কে চ্যালেঞ্জ অনুব্রতর



দিনে এই লোক, রাতে  এই লোক।বার বার লোক চেঞ্জ করছে। মা বাবারা ছোট বেলায় যে হাত ধরিয়ে দেয় ।সেই হাতই ধরে থাকে বলে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করেন অনুব্রত মণ্ডল। সোমবার  পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে তৃণমূল কংগ্রেসের জনসভা ছিল।বীরভূম তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল বলেন, বেইমান প্রধানমন্ত্রী।কোন কথা রাখে নাই।আর মোদী বলছে বাংলাকে সোনার বাংলাকে করবো।গুজরাটকে করো।সেখানে তো পারো নাই।
অন্যদিকে তিনি দলীয় নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন , মানুষকে পরিষেবা দিন।কাউকে খ্যাক খ্যাক করবেন না।দু'শো সিট পাবে বলছে বিজেপি।কি করে পাবে।কৃষকের জন্য,দিনমজুরের জন্য,বেকারের জন্য কি করেছে।বাংলার জন্য কিছুই করে নাই।রবীন্দ্রনাথকে সম্মান করে না।রবীন্দ্রনাথকে বলা হয় বহিরাগত। বলা হচ্ছে শান্তিনিকেতনে রবীন্দ্রনাথের জন্ম।
কৃষি বিল নিয়ে তিনি বলেন দিল্লীতে মাইনাস ডিগ্রী তাপমাত্রা। সেখানে হাজার হাজার চাষী ঠাণ্ডায় পড়ে আছে।মোদির সেই দিকে চোখ নাই।
মমতাকে হিংসা করছে মোদি। একের পর এক সব বিক্রি করছে মোদী সরকার। ট্রেন বিক্রি করছো।কয়লা খনি বিক্রি করছে।সবই বিক্রি করে দেওয়া হচ্ছে। লকডাউনে মমতা ব্যানার্জী মানুষের চাল ফ্রী করে দিল।কেন্দ্রীয় সরকার মাত্র তিন মাস চাল দিল।কিন্তু মমতা তা করে নি।জুন মাস পর্যন্ত চাল দেওয়ার কথা ঘোষণা করে দিল।
স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নিয়ে বিদেশিরাও অবাক হচ্ছেন। মমতা সবাইকে কার্ড দিচ্ছে। মোদির হাতে আছে ইডি,সিবিআই। লেলিয়ে দেবে।দাও।আমরা জেল খাটবো।তবু দল ছাড়বো না।অনেক নেতা দল ছেড়ে চলে যাচ্ছে। তাতে কিছুই হবে না।তৃণমূল কংগ্রেসের কিছু হবে না।
মমতা মানুষের কাজ করেছে। মমতা চলে গেলে সব শেষ হয়ে যাবে।বাংলাটা অন্ধকার হয়ে যাবে।বাংলার উন্নয়ন বন্ধ হয়ে যাবে।
বিদেশের মানুষজন বলছে এমন মানুষ পাওয়া যাবে না।এমন মুখ্যমন্ত্রী পাওয়া যাবে নস।সামনে বিধানসভা নির্বাচন। ২২০ থেকে ২৩০ টা আসন পাবে তৃণমূল। 
এদিনও মিমকে আক্রমণ করেন অনুব্রত মণ্ডল। তিনি মিমকে বিজেপির দালাল বলেন। হায়দ্রাবাদ থেকে বাংলায় এসে কিছু করতে পারবে। এখানে চ্যালেঞ্জ গোহারা হারাবো বলেন অনুব্রত।
তিনি মা বোনদের উদ্দেশ্য বলেন আরএসএস দেখবেন বাড়ি বাড়ি গিয়ে টাকা দেবে।টাকা নেবেন। ওই টাকা আরএসএসের নয়।আমার আপনার টাকা নয়।
অন্যদিকে নন্দীগ্রামে মমতার প্রার্থী হিসেবে নিজের নাম ঘোষণা নিয়ে অনুব্রত বলেন। কারো হিম্মত থাকলে ওখানে দাঁড়াক। শুভেন্দুর নাম না করে কড়া হুশিয়ারি কেষ্টর।

Post a comment

0 Comments