আউশগ্রামে বোম উদ্ধারের ঘটনায় শাসক বিরোধী চাপানউতর শুরু

Subscribe Us

আউশগ্রামে বোম উদ্ধারের ঘটনায় শাসক বিরোধী চাপানউতর শুরু



পূর্ববর্ধমানের আউশগ্রামে বোম উদ্ধারের ঘটনায় শাসক বিরোধী চাপানউতর শুরু হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির বোম রাখার দায় চাপাচ্ছে একে অপরের বিরুদ্ধে ।রবিবার আউশগ্রামের ব্রাহ্মনডিহি গ্রামের একটি পুকুরপাড়ে বালির গাদার ওপর বোমাগুলি রাখা ছিল। তৃণমূল কংগ্রেসের  অভিযোগ বিজেপি আশ্রিত দুস্কৃতীরা এইসমস্ত বোমা মজুত রেখেছিল ।বিজেপির পাল্টা অভিযোগ তাদের কর্মীদের ফাঁসানোর উদ্দেশ্যে বোমাগুলি মজুত রেখেছিল শাসকদলের লোকজনই।  খবর পেয়ে আউশগ্রাম থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়।খবর দেওয়া হয় সিআইডির বোম স্কোয়াডকে।
এদিন ব্রাহ্মনডিহি গ্রামের ডিগুলিপুকুর পাড়ে ৬ - ৭ টি বোমা বালির গাদার ওপর পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা।ওই পুকুরপাড়ে আগে থেকেই কিছু বালি জড়ো করে রাখা ছিল।এদিন কয়েকজন বাচ্চা খেলা করার সময় পুকুর পাড়ে বালির গাদায় ওপর কয়েকটি বোমা পড়ে থাকতে দেখে । স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন।পুলিশ বোমাগুলি ঘিরে রাখে।
স্থানীয়রা জানান কয়েকদিন আগে  গ্রামে  মেলার অনুষ্ঠান চলাকালীন রাতের দিকে বোমাবাজির ঘটনা ঘটেছিল।এদিন বোমা উদ্ধারের ঘটনায় বিজেপি তৃণমূল একে অপরের বিরুদ্ধে দোষারোপ  দিচ্ছে । ব্রাহ্মনডিহি গ্রামের বাসিন্দা ভেদিয়া অঞ্চল তৃণমূল সভাপতি নাসিরুল শেখ বলেন "বিজেপির দুস্কৃতীরা  বোমাবাজি করে এলাকা অশান্ত করার উদ্দেশ্যে বোমাগুলি মজুত রেখেছিল।তারাই বালির গাদায় ফেলে দিয়ে যায়।"


আউশগ্রামে বিজেপির ৫২ নম্বর মণ্ডল সভাপতি নিতাই বিশ্বাস বলেন, " ব্রাহ্মনডিহি গ্রামে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অনেক যুবক তৃণমূল ছেড়ে আমাদের সঙ্গে  যোগ দিয়েছেন।তাদের ফাঁসানোর চক্রান্ত করে তৃণমূল কংগ্রেস নিজেরাই বোমাগুলি রেখেছিল।পুলিশ নিরপেক্ষ তদন্ত করে দেখুক।"
 বিজেপির জেলা সাধারণ সম্পাদক তথা আউশগ্রাম বিধানসভার পর্যবেক্ষক  শ্যামল রায় বলেন বিজেপির কার্যকতাদের উপর দোষ চাপানোর জন্য তৃণমূল কংগ্রেস এসব করছে।তৃণমূল বোমগুলি নিয়ে রাজনীতি করে।বোম বারুদ যতই রাখুক এবার নির্বাচনে আউশগ্রাম বিধান সভা বিজেপি জিতবে।

Post a Comment

0 Comments

close