সোনিয়া গান্ধি ও মায়াবতীকে 'ভারতরত্ন' দেওয়ার দাবি কংগ্রেস নেতার

Subscribe Us

সোনিয়া গান্ধি ও মায়াবতীকে 'ভারতরত্ন' দেওয়ার দাবি কংগ্রেস নেতার




ওয়েবডেস্ক :-  দেশের সর্বোচ্চ সম্মান 'ভারতরত্ন'। সোনিয়া গান্ধি ও মায়াবতীকে 'ভারতরত্ন' দেওয়া উচিত বলে মনে করেন উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা হরিশ রাওয়াত।সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের উন্নয়নের স্বার্থে বহুজন সমাজবাদী পার্টির প্রধান সারা জীবন ধরে কাজ করে চলেছেন বলে দাবি রাওয়াতের। একইভাবে দেশে নারীদের উন্নয়নে একাধিক কাজে নজির গড়েছেন সোনিয়া গান্ধি , এই মন্তব্য করে টুইটে এই দুই নেত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন রাওয়াত। কংগ্রেস নেত্রীর প্রশংসা করে টুইটারে উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, ভারতীয় মহিলাদের উন্নয়নের দিশা দেখিয়েছেন সোনিয়া গান্ধি । ভারতীয় নারীরা তাঁকে নিয়ে গর্বিত। উল্লেখ্য, টানা দশ বছর ইউপিএর চেয়ারপার্সন ছিলেন সোনিয়া গান্ধি । সেই সময় পরপর চার বছর বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী মহিলা নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০০১ থেকে ২০১০ পর্যন্ত কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন সরকারকে বকলমে তিনি পরিচালনা করতেন বলেও মনে করে রাজনৈতিক মহল। তাঁর এই ভূমিকাকে সম্মান জানানো প্রয়োজন বলে মনে করেন হরিশ রাওয়াত। একইসঙ্গে বসপা সুপ্রিমোর প্রশংসায় রাওয়াতের টুইট, ''মিসেস মায়াবতীজি বছরের পর বছর ধরে দুঃস্থ ও শোষিতদের মনে এক বিস্ময়কর বিশ্বাস জাগিয়ে তুলেছেন। ভারত সরকারের এই দুই ব্যক্তিত্বকে এই বছরের 'ভারতরত্ন' দিয়ে সম্মান জানানো উচিত।'' এদিকে, সোশ্যাল মিডিয়ায় রাওয়াতের এই টুইট নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। নেটিজেনদের একাংশ, উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর এই দাবির সঙ্গে একেবারেই একমত হতে পারছেন না। কেউ কেউ আবার এই প্রস্তাবে তীব্র বিরোধিতা করেছেন। তাঁদের কথায়, দুজনে কেবল নিজের স্বার্থপূরণ করতে কাজ করেছেন। তাঁদের বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে।

Post a Comment

0 Comments

close