ধান কাটার মেসিন কিনে বিপাকে চাষীরা

Subscribe Us

ধান কাটার মেসিন কিনে বিপাকে চাষীরা



ইঞ্জিন ট্রাবল নিয়ে গল্প আমরা অনেকেই পড়েছি৷ রোডরোলারের সমস্যা নিয়ে জনপ্রিয় হিন্দী সিনেমা হয়েছে। এবার ধান কাটার মেসিন কিনে বিপাকে হুগলী, হাওড়া,বর্ধমান আসানসোল সহ বেশ কয়েকটি এলাকার চাষীরা। অভিযোগের তীর  পাণ্ডুয়ার বেসরকারি  সংস্থার বিরুদ্ধে।চাষীরা জানাচ্ছেন,  ২০১৮ - ২০১৯ সালে বিশ্বাস এর্গো প্রায় ১৪০ টি কৃষি কাজে ব্যবহার্য ধান কাটার যন্ত্র বা হার্ভেস্টার মেশিন বিক্রি করে। অভিযোগ, দাম নেওয়া হয় প্রায় ২০ থেকে ২৭ লক্ষ টাকা করে। অভিযোগ,  কিন্তু সেই মেশিন যখন কৃষি ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হচ্ছে দেখা যাচ্ছে গাড়ির অধিকাংশ যন্ত্রাংশ বিকল হয়ে যাচ্ছে। ফলে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে গাড়ি মালিকদের। সেই বিকল হয়ে যাওয়া যন্ত্রাংশ যখন তারা কিনতে গেলে বেশী দাম নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন গাড়ি মালিকরা। গাড়ির মালিকদের অভিযোগ,  সমস্যার কথা ডিলারকে জানালে তাঁদের সঙ্গে দূরব্যবহার করেছেন। গাড়ির মালিকরা  কোম্পানির  টেকনিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার সহ বিভিন্ন জায়গায় মেল করে সমস্ত সমস্যার কথা জানালে প্রথমে গাড়ি ফিরিয়ে নেওয়ার  আশ্বাস দিলেও পরে মালিক পক্ষের সঙ্গে কোন যোগাযোগ করেনি৷
পরবর্তীকালে  গাড়ির মালিকেরা জানতে পারেন, আগের বরাত বাতিল করে  অন্য ব্যক্তিকে ডিলারশিপ দিয়ে দেওয়া হয়েছে।  অভিযোগকারী কাজি মনিরুল হক জানান, এক দিকে গাড়ি কেনার জন্য বিভিন্ন জায়গা থেকে ঋণ নিয়েছেন। সেই টাকা মেটাতে হিমশিম খাচ্ছেন তাঁরা । পাশাপাশি গাড়ি খারাপ হয়ে পরে থাকার কারণে কাজ করতে পারছেন না।  ফলে প্রচণ্ড সমস্যার মধ্যে পড়েছেন গাড়ির মালিকেরা।  গাড়ির মালিকরা পাণ্ডুয়া থানায় লিখিত   অভিযোগ জানিয়েছেন।  
বর্ধমানের  ফেরীঘাটে সংস্থার অফিস রয়েছে। সেখানে যোগাযোগ করা হলে  কতৃপক্ষের তরফে অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়  সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাদের পাল্টা দাবী , কিছু ক্রেতা যন্ত্র কিনে টাকা পরিশোধ করেননি । তারা  মেশিন ফেরত দিয়ে টাকা ফেরাতে  চাইছেন। ওই ব্যক্তিরা  মানুষকে ভুল বুঝিয়ে একজোট করতে চাইছেন  । কিন্তু মানুষ ভুল বুঝতে পেরেছেন । কোম্পানি সমস্ত রকমের পরিষেবা দিয়ে আসছে সারা বছর । কোনভাবেই সুনাম নষ্ট করার জন‍্য একাংশ চক্রান্ত করেছে বলে অভিযোগ ।

Post a Comment

0 Comments

close