সংক্রান্তিতে শীতের আমেজ ফেরার সম্ভাবনা

Subscribe Us

সংক্রান্তিতে শীতের আমেজ ফেরার সম্ভাবনা



নিজস্ব সংবাদদাতা :-   বছর শুরুর শীতের মজা অধরা বঙ্গবাসীর একটি বড় অংশের। ভোর হোক বা সকাল, দিন কিংবা রাত, কোনও সময়েই উপভোগ করার মতো শীতের পরশ মিলছে না। শীতপ্রেমী বাঙালির মুখ তাই ভার। দক্ষিণবঙ্গে উধাও শীত। পারদ চড়ছে। গত পাঁচ দিনে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি বেড়েছে।  ভরা জানুয়ারিতেও গরমের অনুভূতি। এমনিতেই এবছর দফায় দফায় শীতের পথে বাধা এসেছে। ২০২০-এর শেষ কয়েকটি দিন ঠান্ডার রেশ ছিল ভালোই। হাড়কাঁপানো না হলেও তাপমাত্রার পতন আশা জাগাচ্ছিলো। নতুন বছরের শুরুতে কনকনে শীতের আশায় বুক বেঁধেছিল বঙ্গবাসী। তবে 'আশায় মরে চাষা', এপ্রবাদই যেন সত্যি করল আবহাওয়ার খামখেয়ালিপনা।এখন কয়েকটি দিন আবহাওয়ার হেরফের হবে না। এমনই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। পশ্চিমী ঝঞ্ঝায় আটকে রয়েছে উত্তুরে হাওয়া। সেই কারণেই পূবালী হাওয়ার দাপটে স্বাভাবিকের থেকে বেশি তাপমাত্রা। সেই কারণেই দিনে উধাও শীতের আমেজ। তবে রাতের দিকে হালকা শীতের পরশ মিলবে। জলীয় বাষ্প বেশি থাকায় আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি বজায় থাকবে। কলকাতায় মেঘমুক্ত পরিষ্কার আকাশ। রাতে ও সকালে শীতের সামান্য আমেজ। বেলা বাড়লে তাপমাত্রা বাড়বে। সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৮.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে ৫ ডিগ্রি বেশি। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা পৌঁছেছে ৩০.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।চলতি মরসুমে কী তবে আর শীতের দেখা পাওয়া যাবে না? বহু শীতবিলাসীর মনে একই প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে। তাদের জন্য কিছুটা হলেও আশার খবর শুনিয়েছে আলিপুর হাওয়া দপ্তর।হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস অনুযায়ী সংক্রান্তিতে ফের পারদ নামার সম্ভাবনা রয়েছে।


Post a Comment

0 Comments

close