ভারতেও ছাড়পত্র পেয়ে গেল অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রজেনেকার ভ্যাকসিন

Subscribe Us

ভারতেও ছাড়পত্র পেয়ে গেল অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রজেনেকার ভ্যাকসিন




নিজস্ব সংবাদদাতা :   কেন্দ্রের বিশেষজ্ঞ প্যানেলের কাছ থেকে ছাড়পত্র পেয়েছে অক্সফোর্ডের কোভিড টিকা। শনিবার থেকেই দেশজুড়ে করোনা টিকার ড্রাই-রান শুরু হচ্ছে। ব্রিটেনের অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির তৈরি ভ্যাকসিনের ফর্মুলায় ভারতে কোভিশিল্ড তৈরি করেছে পুণের সেরাম ইনস্টিটিউট। জরুরি ভিত্তিতে টিকাকরণের অনুমতি চেয়ে প্রস্তাব পেশ করেছিল সেরাম। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নেতৃত্বে ভ্যাকসিন রেগুলেটরি কমিটির উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে অক্সফোর্ডের টিকা তথা সেরামের কোভিশিল্ডকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। নভেম্বরেই জরুরি ভিত্তিতে টিকাকরণ শুরু করার অনুমতি চেয়েছিল সেরাম। কিন্তু সে প্রস্তাব খারিজ করে দেয় কেন্দ্রীয় ড্রাগ কন্ট্রোল এবং তার অধীনস্থ ভ্যাকসিন রেগুলেটরি কমিটি। বলা হয়, চূড়ান্ত পর্যায়ে টিকার সেফটি ট্রায়ালে রিপোর্ট জমা করতে হবে সবিস্তারে। তাছাড়া, অ্যাস্ট্রজেনেকার টিকার ডোজ নিয়ে বিভ্রান্তি থাকায় সেরামকে চটজলদি টিকাকরণের অনুমতি দিতে রাজি হয়নি কেন্দ্র। কিন্তু এখন, অক্সফোর্ড নিজেও দাবি করেছে তাদের টিকা ৯৫ শতাংশ কার্যকরী হয়েছে। ডোজ নিয়ে এতদিন যে ধোঁয়াশা ছিল তা কেটেছে। এই পরিস্থিতিতে কারা আগে টিকা পাবেন, কত খরচ পড়বে ইত্যাদি নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা রয়েছে। সে সবেরই জবাব দিলেন এইমস অধিকর্তা রণদীপ গুলেরিয়া। কোভিড যুদ্ধে যাঁরা সারিতে দাঁড়িয়ে লড়েছেন, অর্থাত্ চিকিত্সক, নার্স, পুলিশ সহ ঝুঁকিপূর্ণদেরই আগে প্রতিষেধক দেওয়া হবে। আগামী ৬-৮ মাসের মধ্যে অন্তত ৩০ কোটি নাগরিক টিকা পাবেন, জানালেন এইমস ডিরেক্টর। তবে ঝুঁকিপূর্ণ কারা, তা কীসের ভিত্তিতে বিচার হবে, সে প্রসঙ্গে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি-কে দেওয়া সাক্ষাত্‍কারে তিনি বলেন, 'যাঁদের ডায়াবেটিস, হার্ট এবং শ্বাসপ্রশ্বাসের মারাত্মক সমস্যা রয়েছে, তাঁদেরই বেছে নেওয়া হবে। এঁদের মধ্যে থেকেই আবার ভাগাভাগি হবে।  কারওর ডায়াবেটিস রয়েছে, কিন্তু খাওয়া-দাওয়া নিয়ে তিনি অত্যন্ত সচেতন। ফলত রোগ নিয়ন্ত্রণেই রয়েছে। আবার অন্য এক ব্যক্তি বিগত ১০ বছর ধরে ইনসুলিন নিচ্ছেন। এবার কার রোগ কতটা গুরুতর, তার ওপরও বিচার হবে।' গুলেরিয়া বলেন, 'আপাতত টিকার খরচ সরকারই বহন করবে। অন্য টিকা প্রকল্পের মতো কোভিড টিকাকেও সরকারি প্রকল্পের আওতায় নিয়ে আসার কথা ভাবা হয়েছে। সেক্ষেত্রে কোনও টাকা লাগবে না।'


Post a Comment

0 Comments

close