অর্গানিক ফিশ ফার্মিং এ উৎসাহ বাড়াতে ICAR CIFA -র ডিরেক্টর পান্ডবেস্বরে,কথা বললেন এলাকার মৎস চাষীদের সাথে

Subscribe Us

অর্গানিক ফিশ ফার্মিং এ উৎসাহ বাড়াতে ICAR CIFA -র ডিরেক্টর পান্ডবেস্বরে,কথা বললেন এলাকার মৎস চাষীদের সাথে

 

সংবাদদাতা,পাণ্ডাবেস্বর :- শুক্রবার পান্ডবেস্বরের নবগ্রাম এলাকায় এক মাছ চাষীর পুকুর পরিদর্শনে ICAR CIFA - র ডিরেক্টর ডক্টর,সরোজ কুমার সাঁই ও তার সাথে ছিলেন তারই দপ্তরের বৈজ্ঞানিকরা। এলাকায় মাছ চাষের সাথে সাথে তারা এলাকার মাছ চাষীদের সাথেও কথা বলেন। CIFA র কল্যাণী শাখার প্রধান বৈজ্ঞানিক ডঃ পার্থ পত্রিম চক্রবর্তী এলাকায় মাছ চাষীদের কিভাবে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে জৈব সার ও মাছের জন্য  জৈব খাবার ব্যবহার করে  কম সময়ে বেশি পরিমাণে মাছ চাষ করা যায় সেই সব বিষয় চাষীদেরকাছে তুলে ধরেন । এছাড়াও এই এলাকায় পাবদা মাছ চাষের একটা সম্ভাবনা আছে । এলাকার চাষীদের পাবদা চাষের দিকে জোর বাড়াতে বলেন । কারণ এই এলাকায় পাবদার ভালোই দাম পাওয়া যায় । পাবদা ছাড়াও জয়ন্তী রুই নামে এক উন্নত ধরনের রুই চাষের কথাও  বলেন । তাছাড়াও রয়েছে উন্নত প্রজাতির কাতলা, চিংড়ি প্রভৃতি । 
এলাকার মাছ চাষী তন্ময় ব্যানার্জি ও রিঙ্কু ব্যানার্জি এলাকায় অর্গানিক পদ্ধতিতে আধুনিক উপায়ে মাছ চাষ করে দৃষ্টান্ত রেখেছেন অন্যান্য চাষীদের কাছে । তন্ময় বাবুরা কম সময়ে তাদের পুকুরে চাষ করেন পাবদা,উন্নত মানের রুই ও কাতলা । এটা দেখে স্বাভাতই খুশি ICAR CIFA - র ডিরেক্টর ও তার সঙ্গে আসা বৈজ্ঞানিকরা । তারা বলেন এই পুকুর গুলোতে যদি ঝিনুক পাওয়া যায় তাহলে মাছ চাষের সাথে সাথে মুক্তা চাষ ও লাভজনক হবে । ICAR CIFA - র  তরফে সমস্ত রকম সাহায্য করা হবে চাষীদের মাছ চাষে উৎসাহিত করতে এমনটাই জানান ICAR CIFA - র ডিরেক্টর ডঃ সরোজ কুমার সাঁই । তিনি এও জানান,তার এই ধরণের পরিদর্শন পশ্চিম বর্ধমান জেলায় এখানেই প্রথম। 
এই কথায় ICAR CIFA - র  তরফে এলাকার মাছ চাষীদের উৎসাহ বাড়াতে এই উদ্যোগ বলে জানান। তারা এটাও বলেন যে,মাছ চাষ সব চেয়ে লাভ জনক ব্যবসা। উদাহরণ দিয়ে পার্থ বাবু বলেন এমন দৃষ্টান্ত নেই যে কোনো মাছ চাষী চাষ করে ক্ষতির ফলে আত্মহত্যা করেছে । কিন্তু আলু চাষী,ধান চাষী ,চাষ করেও ক্ষতির মুখে পড়ে আত্মীয়হত্যার দৃষ্টান্ত প্রচুর। মাছ চাষ করে কম খরচে অধিক লাভ করা যায়। এই বিষয়ে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার মাছ চাষীদের নানান ভাবে উৎসাহিত করে থাকেন । 
ICAR CIFA - র ডিরেক্টর সাহেব আজকের এই পরিদর্শনে এসে এটাও বলেন যে আগামী দিনে এই এলাকায় একটা পাবদা মাছের হ্যাচারিজ বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে তাদের । যার ফলে এখানেই পাবদার ডিম হবে ,বাচ্চা হবে  এবং পরে সেগুলো এলাকার নানান জায়গায় চাষের জন্য পাঠানো হবে ।

Post a comment

0 Comments