আসন রফা নিয়ে আলোচনা থমকে গেল মাঝপথেই

Subscribe Us

আসন রফা নিয়ে আলোচনা থমকে গেল মাঝপথেই



নিজস্ব সংবাদদাতা :- বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ক্রান্তি প্রেসে জোটের আসন রফার নিয়ে আলোচনা করতে বৈঠকে ছিলেন বামফ্রন্ট ও কংগ্রেস নেতারা। এ দিন বামেদের পক্ষে বৈঠকে ছিলেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু, আরএসপি রাজ্য সম্পাদক বিশ্বনাথ চৌধুরী, ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা নরেন চট্টোপাধ্যায় প্রমুখ। কংগ্রেসের তরফে এই বৈঠকে যোগ দেন বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান ও রাজ্যসভার সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য। কিন্তু বৈঠক শেষে বিমানবাবু যৌথ কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেন। সঙ্গে জানিয়ে দেন, এআইসিসি-র ঠিক করে দেওয়া কংগ্রেসের 'নেগোশিয়েশন কমিটি' পূর্ণাঙ্গ ভাবে এই বৈঠকে যোগ দেননি। তাই আসন সমঝোতা নিয়ে কথা হবে পূর্ণাঙ্গ কমিটির সঙ্গে বৈঠকে। তবে আসনরফা করতে গিয়ে অযথা জটিলতা বাড়ালে বিজেপি ও তৃণমূল সুবিধা পাবে। রাজ্য ও কেন্দ্রের শাসকদল যাতে কোনও সুবিধা না পায় সে বিষয়ে সম্মত হয় জোটের দুই শিবির। যেমন পুরুলিয়ায় ফরওয়ার্ড ব্লককে একটি আসনও ছাড়বে না বলে জেলা কংগ্রেস জানিয়েছে। বৈঠকে এই দাবি নাকচ করে দেন কংগ্রেসেরই দুই নেতা। তবে নির্বিঘ্নে আসনরফা কতটা সম্ভব তা নিয়ে ধন্দে বাম শিবির। জটিলতা কাটিয়ে বামেরা যে দ্রুত আসনরফা সেড়ে ফেলার পক্ষপাতী বৃহস্পতিবার সেই ইঙ্গিত মিলেছে ফ্রন্ট চেয়ারম্যানের গলায়। দু'ঘণ্টার বৈঠকে আপাতত স্থির হয়েছে, জানুয়ারি মাস জুড়ে যৌথ কর্মসূচি করবে বাম-কংগ্রেস। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মদিনের যৌথ কর্মসূচিতেও অংশ নেবে তারা। ২৬ জানুয়ারি 'সংবিধান ফিরিয়ে দাও, গণতন্ত্র ফিরিয়ে দাও' কর্মসূচি হবে। যেখানে হাজির থাকবেন দু'দলের রাজ্য নেতারা। ২৭ জানুয়ারি জেলায় জেলায় দু'পক্ষের নেতা-কর্মীরা জেলাশাসকের দফতর ঘেরাও করে ডেপুটেশন দেবেন।

Post a comment

0 Comments