পর্যবেক্ষক নিয়োগের খবরকে 'ভিত্তিহীন' বলে দাবি তৃণমূলের

Subscribe Us

পর্যবেক্ষক নিয়োগের খবরকে 'ভিত্তিহীন' বলে দাবি তৃণমূলের

 

নিজস্ব সংবাদদাতা :   তৃণমূলে জেলা পর্যবেক্ষক পদ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে টানাপোড়েন ছিল। এই পর্যবেক্ষক পদ তুলে দেওয়া নিয়েই ক্ষোভ ছিল রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর। পর্যবেক্ষক পদ ফিরিয় আনা নিয়ে দলের অন্দরে নিজের ক্ষোভের কথা জানিয়েও ছিলেন শুভেন্দু। কিন্তু দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রকাশ্য জনসভায় সাফ জানিয়ে দেন, রাজ্যে সব জেলায় তিনিই পর্যবেক্ষক। তারপরেই ধৈর্যের বাঁধ ভাঙে শুভেন্দুর।বুধবার রাতে তৃণমূল সূত্রে জানা যায়, রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সিকে কোচবিহার-সহ দুই দিনাজপুর, ফিরহাদ হাকিমকে মালদা-মুর্শিদাবাদ, হাওড়া ও হুগলির দায়িত্ব, মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে নদিয়া, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রাম এবং অরূপ বিশ্বাসকে দুই বর্ধমান-সহ উত্তরের জলপাইগুড়ি-আলিপুরদুয়ারের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে সরকারি ভাবে পর্যবেক্ষক করা হয়নি বলেও সূত্রের দাবি ছিল। কিন্তু আদৌ এসব কিছু হয়নি বলে টুইট করে স্পষ্ট করল সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস। বৃহস্পতিবার সকালে টুইট করে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরকে ভুল বলে দাবি করেছে শাসকদল। জানিয়েছে, এমন কিছু আদৌ হয়নি। ভিত্তিহীন খবর প্রকাশিত হয়েছে। টুইটে লেখা হয়েছে, 'বাংলার কয়েকটি জেলায় 'পর্যবেক্ষক' নিয়োগের যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, তা ভিত্তিহীন। এ জাতীয় কোনও নিয়োগ (অ্যাপয়েন্টমেন্ট) দেওয়া হয়নি। এটি স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে'। সূত্র মারফত জানা গিয়েছিলো , শীর্ষনেতাদের দায়িত্ব দেওয়া হলেও 'পর্যবেক্ষক' শব্দটি ব্যবহার করা হয়নি। কিন্তু বৃহস্পতিবার সকালেই দলের তরফে আনুষ্ঠানিক ভাবে জানিয়ে দেওয়া হল, সে সব কোনও নিয়োগই হয়নি। অর্থাত্, এতদিন যেমন জেলা সভাপতিরা কাজ চালাচ্ছিলেন, তাঁরাই কাজ চালিয়ে যাবেন।

Post a Comment

0 Comments

close