বেআইনি পোস্ত চাষের বিরুদ্ধে বড়সড় সাফল্য পেলো বাঁকুড়া জেলা আবগারি দফতর

Subscribe Us

বেআইনি পোস্ত চাষের বিরুদ্ধে বড়সড় সাফল্য পেলো বাঁকুড়া জেলা আবগারি দফতর



ওয়েবডেস্ক:-বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ ও আবগারি দফতর আধিকারিকা বাঁকুড়া জেলার মেজিয়া ব্লকের বাগানগোড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত দামোদর নদী গর্ভের বিস্তির্ন এলাকায় অভিযান চালায়।ড্রজার, ট্রাক্টর ও রোটার চালিয়ে নষ্ট করে ফেলা হয় বিঘের পর বিঘে জমির পোস্ত চাষ। বাঁকুড়া ও পশ্চিম বর্ধমানের সীমানায় মেজিয়া ব্লকের বাগানগোড়া এলাকায় দামোদর নদের চরের পলি মাটি সমৃদ্ধ সরকারি সেই জমি যথেষ্ট উর্বর হওয়ায় দু পাড়ের কিছু কৃষিজীবী মানুষ সেখানে আলু ও সবজী চাষ করেন। আর এই আলু ও সবজী জমির মাঝেই কিছু অসাধু কৃষক প্রতি বছর গোপনে রোপন করে দেয় পোস্ত বীজ। পোস্ত গাছে ফল আসতেই এই এলাকায় শুরু হয় মাদক কারবারিদের আনাগোনা। গাছে ধরে থাকা পোস্তর ফল থেকে বিশেষ পদ্ধতিতে মাদক জাতীয় বহুমূল্য উপক্ষার সংগ্রহ করে তা চড়া দরে কালোবাজারে বিক্রি করে দেয় কারবারিরা। আর এভাবেই সরকারি জমিতে প্রতি বছর চলে কোটি কোটি টাকার মাদকের চোরাই কারবার। এই চরগুলির দুর্গমতার কারনে পুলিশ ও প্রশাসনের নজরদারিও সেভাবে থাকেনা। জমিগুলি কোনো ব্যাক্তি মালিকানাধীন না হওয়ায় অসাধু কৃষকদের চিহ্নিত করাও যথেষ্ট কঠিন হয়ে পড়ে।এবার আগাম খবর পেয়ে আবগারি দফতর রীতিমত বড়সড় অভিযান চালাতে শুরু করেছে। জেলা আবগারি দপ্তরের আধিকারিকের দাবি দুশ থেকে আড়াইশো বিঘা জমির এই অবৈধ পোস্ত চাষ ধ্বংস করা হয়েছে।  সরকারিভাবে সচেতনতার অভাব কিংবা অধিক মুনাফার কারণেই অসাধু ব্যবসায়ী চাপে পড়ে কৃষকদের এই চাষ করানো হতে পারে বলেও অনুমান। দামোদরের চরে এই পোস্ত চাষের সাথে কোনো আন্তঃরাজ্য বা আন্তর্জাতিক মাদক পাচার চক্রের যোগ রয়েছে কিনা সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে আবগারি দফতর।

Post a Comment

0 Comments

close