বাড়িতে ঢুকে এক বধূকে জোর করে ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কাণ্ড বাঁধল পূর্ব বর্ধমানের ভাতারে

Subscribe Us

বাড়িতে ঢুকে এক বধূকে জোর করে ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কাণ্ড বাঁধল পূর্ব বর্ধমানের ভাতারে





গ্রামবাসীদের অভিযোগ ভাতারের ঝাড়ুল গ্রামের এক ব্যক্তি কুশোডাঙ্গা আদিবাসীপাড়ার এক বধূকে শুক্রবার রাতে ধর্ষণের চেষ্টা করে।বধূর চিৎকারে পাড়াপ্রতিবেশীরা ছুটে এসে অভিযুক্তকে হাতেনাতে ধরে ফেলে।তাকে রাতভর একটি ঘরে আটক করে রাখা হয়। শনিবার সকালে ঝাড়ুল গ্রামের লোকজন কুশোডাঙ্গা আদিবাসীপাড়ায় গিয়ে অভিযুক্তকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। তাদের সঙ্গে এলাকার লোকজনের একপ্রস্থ  সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে আহত হয়েছেন কয়েকজন। ভাতার থানার পুলিশ ও বর্ধমান পুলিশলাইন থেকে অতিরিক্ত পুলিশবাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার উদ্দেশ্যে এলাকায় বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট। কুশোডাঙ্গা আদিবাসীপাড়ায় বাসিন্দারা এনিয়ে  হামলা, ভাঙচুর ও মারধরের অভিযোগ দায়ের করেছেন।
কুশোডাঙ্গা আদিবাসীপাড়ার বাসিন্দা বছর ৪৫ ওই বধূ জনমজুরের কাজ করেন।তিনি ঝাড়ুল গ্রামের যে কৃষকের কাছে জনমজুরের কাজ করতেন তার বিরুদ্ধেই মূলত অভিযোগ। কুশোডাঙ্গা আদিবাসীপাড়ার বাসিন্দাদের অভিযোগ ঝাড়ুল গ্রামের বাসিন্দা ওই কৃষক শুক্রবার তাদের পাড়ায় গিয়ে ওই বধূর বাড়িতে ঢুকে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। বধূর চিৎকার চেঁচামেচি শুনে স্থানীয়রা এসে অভিযুক্তকে ধরে ফেলা হয়।
অন্যদিকে, অভিযুক্তের পরিবারের লোকজনদের দাবি ওই জনমজুর মহিলাদের বাড়িতে গিয়ে পাওনা মজুরি মেটাতে যাওয়ার সময় কুশোডাঙ্গার লোকজন সন্দেহের বশে তাকে আটকে রেখে মারধর শুরু করে। ঝাড়ুল গ্রামের লোকজন খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে আনে। কিন্তু এখন মিথ্যা শ্লীলতাহানির অভিযোগ তোলা হচ্ছে।

Post a Comment

0 Comments

close