দক্ষিণেশ্বর মেট্রোর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

Subscribe Us

দক্ষিণেশ্বর মেট্রোর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী



সোমবার বিকেল প্রায় চারটে নাগাদ হুগলির সাহাগঞ্জে পৌঁছন প্রধানমন্ত্রী। তাঁকে ধনিয়াখলির তাঁতের কাপড় দিয়ে অভ্যর্থনা জানায় বঙ্গ বিজেপি।
মঞ্চ থেকে প্রধানমন্ত্রী বলেন , ‘স্বাধীনতার আগে দেশের অন্য রাজ্যের থেকে এগিয়ে ছিল বাংলা। কিন্তু যারা এত দিন বাংলায় রাজত্ব করেছে, তারা বাংলাকে দুর্দশার দিকে ঠেলে দিয়েছে। বাংলার উন্নতিরে সামনে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে মা-মাটি-মানুষের সরকার। কৃষক ও গরিবের পয়সা তাদের অ্যাকাউন্টে ঢুকছে।
যে কারনে তৃণমূলের নেতাদের প্রতিপত্তি বেড়ে চলেছে, আর সাধারণ মানুষ কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। বাংলার মানুষের অধিকার এখানকার সরকার ছিনিয়ে নিয়েছে। বাংলার লক্ষ লক্ষ দরিদ্র পরিবার আয়ুষ্মান ভারতের আওতায় ৫ লক্ষ টাকার সুবিধা থেকে আজও বঞ্চিত।’ তিনি বলেন, ‘বঙ্কিমচন্দ্রের বন্দেমাতরম ভবনের রক্ষণাবক্ষণে নজর দেয়নি কেউ। এর পিছনে অনেক বড় রাজনীতি লুকিয়ে রয়েছে।
এই রাজনীতি দেশভক্তির বদলে ভোটব্যাঙ্কের, সকলের বিকাশের পরিবর্তে তোষণের। এখানে দুর্গাপুজোর ভাসানও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বাংলার মানুষ এদের ক্ষমা করবে না। বাংলার মানুষকে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, ‘২১-এ বিজেপির সরকার এলে বাংলার মানুষ নিজের সংস্কৃতি নিয়ে মাথা উঁচু করে বাঁচবে।’
নোয়াপাড়া ছাড়িয়ে কলকাতা মেট্রো এগিয়েছে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত। সোমবার বিকেলে ভার্চুয়াল মাধ্যমে সেই সম্প্রসারিত অংশের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । তবে নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রোর উদ্বোধন করা হলেও যাত্রীদের জন্য এর পরিষেবা শুরু হবে ২৩ ফেব্রুয়ারি, মঙ্গলবার।
এই প্রকল্পের সুবিধা হচ্ছে, ৫০ হাজার যাত্রী দৈনিক এই মেট্রো প্রকল্পের মাধ্যমে উপকৃত হবেন। দক্ষিনেশ্বর থেকে নিউ গড়িয়া অর্থাত্ কবি সুভাষ ৬২ মিনিটে পৌঁছে যাওয়া যাবে। সড়ক পথে এই রাস্তা যেতে সময় লাগে ১৫০ মিনিট। এসপ্লানেডে থেকে দক্ষিনেশ্বর যেতে সময় লাগবে মাত্র ৩২ মিনিট। আর এই যাত্রা হবে দূষণমুক্ত।
এর ফলে বেলুড়, বালি, উত্তরপাড়া, ডানকুনি, ব্যারাকপুর,কামারহাটি, ডানলপের মতো জায়গায় বসবাসকারী মানুষদের যাতায়াত সুবিধাজনক হবে। শুধু এটাই নয় এ ছাড়াও পূর্ব রেলের হাওড়া-বর্ধমান মেইন লাইনের যাত্রীরা কাটোয়া-হাওড়া-তারকেশ্বর শাখা এবং ডানকুনি-শিয়ালদা লাইনের যাত্রীরা সহজেই মেট্রো রেলের সুবিধা পাবেন।
মেট্রো সূত্রে খবর, কাজের দিনে দক্ষিণেশ্বর থেকে নিউ গড়িয়া পর্যন্ত চলবে ১৫৮টি ট্রেন। ছুটির দিনে ১৫৬টি ট্রেন চলবে। অফিসটাইমে ৭ মিনিট অন্তর চলবে মেট্রো।যাত্রাপথের কিলোমিটার বাড়লেও মেট্রোর সর্বোচ্চ ভাড়া থাকছে সেই ২৫ টাকাই থাকছে ।

Post a comment

0 Comments