রাজ্যে সরকার বিরোধীদলের বিধায়কদের উন্নয়নমূলক কাজকর্মে বাধা সৃষ্টি করছে বলে অভিযোগ করলেন রানীগঞ্জের বাম বিধায়ক

Subscribe Us

রাজ্যে সরকার বিরোধীদলের বিধায়কদের উন্নয়নমূলক কাজকর্মে বাধা সৃষ্টি করছে বলে অভিযোগ করলেন রানীগঞ্জের বাম বিধায়ক




নীলেশ দাস, আসানসোল:-রাজ্যে সরকার, বিরোধীদলের বিধায়কদের উন্নয়নমূলক কাজকর্মে বাধা সৃষ্টি করে, বিধায়ক তহবিল এর উন্নয়নের কাজকে স্তব্ধ করতে চাইছে, ও বাম বিধায়কদের দ্বারা উপস্থাপিত বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা, বিভিন্ন ভাবে আটকে রেখে, উন্নয়নের পথকে অবরুদ্ধ করেছে। আর এই কাজে সহায়ক হয়ে দাঁড়িয়েছে জেলাশাসকের দপ্তরে থেকে শুরু করে আসানসোল কর্পোরেশন তথা সমষ্টি উন্নয়ন দপ্তর। মঙ্গলবার এমনই দাবি করে সাংবাদিক বৈঠকে সরব হলেন রানীগঞ্জের বাম বিধায়ক রুনু দত্ত। 
তিনি এদিন দাবি করেন বিধায়ক তহবিল থেকে গত ছয় বছরে বছর প্রতি 60 লক্ষ টাকা তার তহবিলে কাজ করার জন্য দেওয়ার কথা থাকলেও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে কাজের টেন্ডার কে দেরি করিয়ে রাস্তাঘাটের উন্নয়ন, এলাকার উন্নয়ন, স্কুল-কলেজের উন্নয়নের যে তহবিল, সেই তহবিলের টাকা খরচ না করার চেষ্টা চালিয়েছে রাজ্যের শাসক দল, বলেই দাবি করেন বিধায়ক। তার কথায় গত পাঁচ বছরে তিন কোটি টাকা তার তহবিলে আসার কথা থাকলেও 40% থেকে 50% এর মত টাকায় তিনি উন্নয়নের কাজ করতে পেরেছেন। 



যা বহুভাবে তাড়া দিয়ে কাজগুলি করাতে তিনি সম্ভবপর হয়েছেন। তার কথায় এলাকার বিভিন্ন স্কুলে পরিশুদ্ধ পানীয় জল যাতে দেওয়া হয় তার জন্য তিনি ওয়াটার পিউরিফায়ারের সাথেই কুলার মেশিন দেওয়ার টেন্ডার পাঠিয়েছিলেন, জেলা শাসকের কাছে, কিন্তু সেই টেন্ডারের টাকা পরিবর্তিত না হয়েও শুধুমাত্র কুলার দিয়ে, স্কুল গুলিকে উপযুক্ত পরিশুদ্ধ  পানীয় জল পাওয়ার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে, একইভাবে এলাকার শ্মশান ঘাটের উন্নয়ন, গির্জাপাড়া, অশোক পল্লী, সহ বেশ কয়েকটি এলাকার রাস্তার নির্মাণের টাকা স্যাংশন হলেও, সেই টাকা দিয়ে রাস্তা নির্মাণের কোন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি একই সাথে বিভিন্ন অংশে পানীয় জল থেকে শুরু করে নালা-নর্দমা সহ নানাবিধ কাজ বিভিন্ন উপায়ে আটকে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে জেলা শাসকের দপ্তর থেকে সমষ্টি উন্নয়নে দপ্তরের অনেকেই, যার ফলে বিধায়কের যে উন্নয়নের কাজ তাকে ত্বরান্বিত করতে, বহুভাবে বাধা পেতে হয়েছে বাম বিধায়কে বলে তিনি দাবি করলেন রুনু দত্ত তার বক্তব্যে।

Post a Comment

0 Comments

close