চুরি হওয়া ১১ লক্ষ টাকা এক সপ্তাহের মধ্যে উদ্ধার করে ফিরিয়ে দিল ভাতার থানার পুলিশ

Subscribe Us

চুরি হওয়া ১১ লক্ষ টাকা এক সপ্তাহের মধ্যে উদ্ধার করে ফিরিয়ে দিল ভাতার থানার পুলিশ



চুরি হওয়া ১১ লক্ষ টাকা এক সপ্তাহের মধ্যে উদ্ধার করে দিল পুলিশ। মেয়ের বিয়ের জন্য জমি বিক্রির টাকা ফিরে পেয়ে খুশী চাঁদনীহারা খাতুন।   পূর্ব বর্ধমানের ভাতারের মুরাতিপুর গ্রামের বিধবা চাঁদনীহারা খাতুনের ১১ লক্ষ টাকা বাড়ি থেকে চুরি করে নিয়েছিল তার প্রতিবেশী।অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে প্রথম দফায় ৬ লক্ষ টাকা উদ্ধারের পর ধৃতকে হেফাজতে নিয়ে বাকি টাকাও উদ্ধার করল ভাতার পুলিশ। জমি বিক্রি করে মেয়ের বিয়ের জন্য রাখা টাকা উদ্ধারের পর স্বস্তিতে মহিলা।তিনি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন পুলিশের প্রতি।মুরাতিপুর গ্রামের বাসিন্দা পেশায় অঙ্গনওয়ারি কর্মী চাঁদনীহারা খাতুন তার ছোট মেয়ের বিয়ের জন্য জমি বিক্রির ১১ লক্ষ টাকা বাড়ির আলমারিতে একটি বাক্সের মধ্যে রেখে দিয়েছিলেন। তিনি    বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন এক আত্মীয়র বাড়ি। গত সোমবার বাড়ি ফিরে আসার পর দেখতে পান আলমারির চাবির গোছা ফ্রিজের ওপর রাখা।তালা অক্ষত।কিন্তু ১১ লক্ষ টাকা চুরি হয়ে গিয়েছে।ওদিন রাতেই তিনি ভাতার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ  তদন্তে নেমে মহিলার প্রতিবেশী শেখ হাসমত আলীকে গ্রেফতার করে। হাসমতের যাতায়াত ছিল মহিলার বাড়িতে। তার দিকেই প্রথম থেকে সন্দেহ ছিল। হাসমতকে গ্রেফতার করার পর পুলিশ  গত বুধবার তার বাড়ি থেকে পুলিশ ৬ লক্ষ ২০ হাজার টাকা উদ্ধার করে। বাকি টাকা উদ্ধারের জন্য তাকে ৩ দিনের পুলিশ হেফাজতে নেয় পুলিশ। এরপর পুলিশ শনিবার রাতে ধৃতকে সঙ্গে নিয়ে গিয়ে বাকি ৪ লক্ষ ৮০টাকা হাজার টাকা উদ্ধার করে। এদিন রবিবার ধৃত হাসমতকে  বর্ধমান আদালতে পাঠায় পুলিশ। একসপ্তাহের মধ্যেই চুরি যাওয়া সমগ্র টাকা উদ্ধার হওয়ায় স্বস্তিতে চাঁদনীহারা।তিনি পুলিশের ভূমিকার প্রশংসা করেছেন।

Post a comment

0 Comments