Subscribe Us

মাজরা পোকার প্রাদুর্ভাবে বোরো চাষের ক্ষতির আশঙ্কায় শস্যগোলা পূর্ব বর্ধমানের কৃষকরা



জেলার ভাতার ব্লকে এখনো পর্যন্ত মাজরা পোকার আক্রমণ সব থেকে বেশী।।এবছর ২২৫০০ হেক্টর জমিতে  বোরো চাষ হয়েছে ভাতারে। দীর্ঘদিন বৃষ্টি না হওয়ায়  পোকার আক্রমণে অনুকূল পরিবেশ তৈরি হয়েছে । যার ফলে ভাতার ব্লকের বিভিন্ন মৌজায় মাজরা পোঁকার আক্রমণের ফলে প্রবল ক্ষতির আশঙ্কা করছে কৃষকরা।ভাতার ব্লকের বাসুদা গ্রামের কৃষক মানিক দাস জানান ,অনেক আশা নিয়ে চার বিঘা জমিতে বোরো চাষ করেছিলাম। কিন্তু মাজরা পোকার আক্রমণে আমরা এখন দিশেহারা। অনেকেই আশা ছেড়ে দিয়েছে। দোকানের নামিদামি কীটনাশক ওষুধ কিনে জমিতে একাধিকবার স্প্রে করা হলেও কোনো সুফল পাওয়া যায়নি। ধারদেনা করে জমি ভাগ নিয়ে চাষ করেছি। এই মুহূর্তে কি করব বুঝে উঠতে পারছি না। 
ভাতার ব্লক সহ কৃষি অধিকর্তার বিপ্লব প্রতিহার জানিয়েছেন, এবছর ভাতার ব্লকের ৩০-৩৫ শতাংশ জমিতে মাজরা পোঁকার উপদ্রব দেখা দিয়েছে। আবহাওয়া জনিত কারণে মাজরা পোঁকার উপদ্রব বেশি হয়েছে। বোরোধানের অধিকাংশ জমিতে  ধান  গর্ভাবস্থায় আসেনি । যার ফলে মাজরা পোঁকা মারার জন্য সঠিক সময়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিলে ধান উৎপাদনে কোন ক্ষতি হবে না। তিনি বলেন  মাজরা পোঁকার জন্য জমিতে নোভালিউরোন মিশ্রণ, অ্যাসিফেট, তার সঙ্গে ল্যানডা কীটনাশক ঔষধ মিশ্রণ করে স্প্রে করলে মাজরা পোকার  থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে। তবে যে হারে ভাতার ব্লকের বোরো চাষের জমিতে মাজরা পোঁকার আক্রমণ হয়েছিল, তাতে বর্তমান পরিস্থিতিতে মাজরা পোঁকার আক্রমন অনেকটাই কমেছে । এই নিয়ে কৃষকদের দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই বলে তিনি জানান।

Post a Comment

0 Comments