বর্ধমানে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের রোডশোয়ে ধুন্ধুমার

Subscribe Us

বর্ধমানে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের রোডশোয়ে ধুন্ধুমার



বর্ধমানে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের রোডশোয়ে ধুন্ধুমার। ইঁট বৃষ্টি হয় দুই বিবদমান শাসক বিরোধী দলের মধ্যে। তৃণমূল কংগ্রেসের কার্যালয়ে হামলা ও ভাঙচুর চালানো হয়। মঙ্গলবার বিকেলে বর্ধমান দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি  প্রার্থী সন্দীপ নন্দীর সমর্থনে দিলীপ ঘোষের রোডশো ছিল শহরের পাওয়ার হাউস পাড়ায়।রোডশো শেষদিকে দিলীপ ঘোষের  কনভয় পেরোনোর  পরই  হঠাৎই উত্তেজনা ছড়ায় রসিকপুরে । অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের একটি ব্যানার ছিড়ে দেওয়া হয়। তারপর হঠাৎই গলির দিক থেকে ইট পাটকেল ছোড়া হয়।মুহূর্তের মধ্যে  দু'পক্ষের সংঘর্ষ বাঁধে।চতুর্দিক থেকে ইঁট পাটকেল পড়তে শুরু হয়।পুলিশের সামনেই রণক্ষেত্রের চেহেরা নেয় রসিকপুর।এরমধ্যে  তৃণমূল কংগ্রেসের একটি কার্যালয়ে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। সেন্ট্রাল ফোর্স ও পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।ততক্ষণে অবশ্য গোটা এলাকায় তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এলাকার বাসিন্দারা ভয়ে আতঙ্কে দরজা জানালা বন্ধ করে দেয়। রাজ্য বিজেপি দিলীপ ঘোষ বলেন এখানে এক সময়ে সিপিএম রাজ করেছে। এখন তৃণমূল কংগ্রেস চাইছে রাজ করতে।কিন্তু এখানকার মানুষ তা সহ্য করবে না। তিনি বলেন এর আগে সিপিএম মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নিতে চেয়েছিল।এবার তৃণমূল কংগ্রেসও তাই করতে চাইছে।কমিশন আছে।আছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। তিনি বর্ধমানের বাসিন্দাদের কাছে নির্ভয়ে ভোট দেবার আহ্বান জানান। বিজেপি প্রার্থী সন্দীপ নন্দী বলেন এদিন আমাদের নেতা দিলীপ ঘোষের শান্তিপূর্ণ রোড শো হচ্ছিল। কিন্তু তৃণমূলকংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরা রোড শোর শেষ দিকে হামলা করলো।মুহু মুহু ইঁট পাটকেল ছুড়লো।এইভাবে বিজেপি আটকানো যাবে না।
অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা আব্দুল রবের অভিযোগ  বিজেপি কর্মী সমর্থকরা রোডশো থেকে হামলা চালায়। তৃণমূল কংগ্রেসের পোস্টার ছিড়ে দেওয়া হয়। তারপর আমাদের দলীয় কার্যালয়ে হামলা করা হয়।ভাঙচুর চালানো হয়। সব কিছুই হয় পুলিশের সামনে।এরপর প্রতিবাদে রাস্তায় নামে তৃণমূল। তারা রাস্তার টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনী যৌথভাবে গিয়ে দুপক্ষের লোকজনকে হটিয়ে দেয়। জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র প্রসেনজিৎ দাস বলেন প্ররিকল্পনা করে বিজেপি আজ শহরে অশান্তি ছড়ালো।

Post a comment

0 Comments