পথ দুর্ঘটনার রুখতে এক টোটো চালকের মানবিক উদ্যোগ

Subscribe Us

পথ দুর্ঘটনার রুখতে এক টোটো চালকের মানবিক উদ্যোগ

পথ দুর্ঘটনা এক পরিচিত শব্দ। প্রতিবছরই সড়ক  দুর্ঘটনায় মানুষের প্রাণ যায়। সরকারিভাবে এই পথদুর্ঘটনা কে রুখতে সেভ ড্রাইভ সেভ লাইফ কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। এতেও কিন্তু দুর্ঘটনা রোখা যায় নি, কারণ একটাই, মানুষের অসচেতনতা।

এই অবস্থায় পূর্ববর্ধমানের ভাতারের কালুত্তক গ্রামের  টোটো চালক শেখ কামাল উদ্দিন যে পথ দেখাল তাতে এলাকার মানুষজন খুশী।তারা সাধুবাদ জানিয়েছেন শেখ কামাল উদ্দিনকে ।

কয়েকদিন আগে ভাতারের নর্জা বাসস্টাণ্ডের কাছে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে মারা যান এক আইনজীবী।কারণ, রাস্তার উপরে পড়ে থাকে কাদা। যার ফলে স্লিপ কেটে গেয়েছিল এবং তিনি পড়ে গিয়েছিলেন বাসের  চাকায়। দুর্ঘটনাস্থলেই প্রাণ গিয়েছিল ওই আইনজীবীর।

এই দুর্ঘটনা  কালুত্তকের শেখ কামাল উদ্দিনকে নাড়া দেয়।  তখন থেকেই তিনি এক নতুন সংকল্প নিয়েছিলেন যে রাস্তার ওপর কাদা পড়ে থাকলে সময় পেলেই তা আমি সরিয়ে ফেলবো।এই কাদা মূলত মাঠ থেকে আসা ট্রাক্টরের চাকা থেকে পাকা রাস্তায় আসে।

পেশায় অটোচালক দিন আনে দিন খায় কিন্তু মনের দিক থেকে তিনি বড় মানুষ।রাস্তায় পড়ে থাকা কাদা তিনি  টোটো চাপিয়ে ফাঁকা স্থানে ফেলছেন।

শেখ কামাল উদ্দিন জানান, এই রাস্তায় কাদা থাকার ফলে একটু বৃষ্টি হলেই পথ দুর্ঘটনা ঘটছে। তাই আমি সময় পেলেই ওই কাদা রাস্তা থেকে সরিয়ে দিচ্ছি। আমাকে কেউ বলে নি। আমি নিজে হতেই এই কাদা সরিয়ে দিচ্ছি ।যদি পথদুর্ঘটনা কমে।

Post a Comment

0 Comments