মদের দোকানে দুঃসাহসিক চুরি,খোয়া গেল লক্ষাধিক টাকার মদ

Subscribe Us

মদের দোকানে দুঃসাহসিক চুরি,খোয়া গেল লক্ষাধিক টাকার মদ

সোমনাথ মুখার্জি, অন্ডাল:- মদের দোকানে দুঃসাহসিক  ডাকাতির ঘটনা ঘটল অন্ডালের ধান্ডাডিহি এলাকায়।গতকাল রাত দশটা নাগাদ অন্ডালের ধান্ডাডিহির একটা লাইসেন্সপ্রাপ্ত মদের দোকানে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে চুরি করে নিয়ে যায় লক্ষাধিক টাকার মদ।মদের দোকানের কর্মী রাম রঞ্জন মণ্ডল জানান ,রাত দশ টার সময় খাওয়াদাওয়া সেরে তাঁরা সিনেমা দেখছিলেন মোবাইলে।

ঠিক সেই মুহূর্তেই কয়েকজন দুষ্কৃতী আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ঢুকে পড়ে দোকানে  এবং  আগ্নেয়াস্ত্র  মাথায় ঠেকিয়ে কেড়ে নেওয়া হয় মোবাইল ও টর্চ। এর কিছুক্ষণ পর আরও বেশ কিছু দুষ্কৃতী গাড়ি নিয়ে আসে সেখানে এবং দোকান থেকে দেশি বিদেশি মিলিয়ে এক একশো পেটিরও বেশি মদ নিয়ে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা,যার মূল্য লক্ষাধিক টাকা।

রাত দশ টার সময় জনবহুল জায়গায় এ রকম ডাকাতির ঘটনায় আতঙ্ক  ছড়িয়েছে এলাকায় । ঠিক এভাবেই গত বছর লকডাউনের সময়  অন্ডালের দক্ষিণখন্ড গ্রামে এরকমই এক মদ দোকান থেকে চুরি যায় লক্ষাধিক টাকার মদ। প্রশ্ন উঠছে লকডাউনের যেখানে সমস্ত রকম মদ্যপান বন্ধ থাকার কথা সেখানে কী ভাবে একটা দোকানে এত মদের মজুদ  ছিল। 

যদিও লক ডাউন হলেও খনি অঞ্চলে লুকিয়ে লুকিয়ে মদ বিক্রি করছেন লাইসেন্সপ্রাপ্ত মদ বিক্রেতারা তাও চড়া দামে এমনটাই স্থানীয় সূত্রের খবর।যেভাবে গত বছর লকডাউনের সময় অণ্ডালের দক্ষিণ খণ্ড এলাকায় মদ দোকান থেকে মদ চুরির পর চড়া দামে মদ বিক্রির অভিযোগ উঠেছিল এলাকায়। স্থানীয়দের একাংশ মনে করছেন এ রকম অভিযোগও উড়িয়ে দেওয়া যায় না যে এবারও লকডাউনের সময় একইভাবে মত দোকান থেকে চুরি গেল লক্ষাধিক টাকার মদ।

এর পিছনে কি মদের কালোবাজারি কোনো একটা রহস্য রয়েছে প্রশ্ন উঠছে ? যদিও মদ দোকানের মালিক শুভেন্দু লায়েক জানান,তিনি তার কর্মচারীদের থেকে শুনেছেন কয়েকজন দুষ্কৃতী আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে তাঁর দোকান থেকে চুরি করে নিয়ে যায় লক্ষাধিক টাকা মদ। তবে ক্ষতির পরিমাণ এখনও পর্যন্ত বোঝা যায়নি সম্পূর্ণ হিসাব নিকাশ হলেই সেটা পরিষ্কার হবে।

শুভেন্দুবাবু জানান এ ঘটনায় পুলিশ সম্পূর্ণভাবে সহযোগিতা করছেন। তিনি আশা করেন খুব শিগগিরই পুলিশের তদন্ত সফল হবে।ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে পুলিশ এবং সম্পূর্ণ ঘটনার তদন্তে নেমেছে অন্ডাল থানার পুলিশ।

Post a Comment

0 Comments

close