Subscribe Us

শুক্রবার আবার আসানসোলের পাইকারি ঔষধের দোকান গুলিতে পরিদর্শন করলেন ড্রাগ কন্ট্রোলার ইন্সপেক্টর

নীলেশ দাস, আসানসোল:- করোনা পরিস্থিতিতে চলছে অক্সিজেনের সংকট সাথে গুরুত্বপূর্ণ ওষুধ। বেশকিছু জায়গায় ওষুধের কালোবাজারি করছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। তাই শুক্রবার আবার আসানসোলের পাইকারি ঔষধের দোকান গুলিতে পরিদর্শন করেন।বর্ধমান ড্রাগ কন্ট্রোলার ইন্সপেক্টর রাজুউল আলম। 

তিনি জানান  যে কিছু ব্ল্যাক মার্কেটিং হচ্ছে ও কিছু অসাধু ব্যবসায়ী তারা মেডিসিনের ফায়দা নেবার চেষ্টা করছে। বেশি করে অক্সিমিটার নিয়ে কালোবাজারি চলছে। আমরা সেই ইনফরমেশন পাওয়ার পর আসানসোলে পাইকারি ঔষধ দোকান গুলি পরিদর্শন করি। 

পরিদর্শন করি আসানসোল রাহালেন- ঘাঁটিগলি সংলগ্ন এন এস রোডে অবস্থিত পাইকারি ঔষধ দোকানে। আমাদের যে গুরুত্বপূর্ণ মেডিসিন আছে সেগুলো মোটামুটি দেখা যাচ্ছে কম নেই। যথেষ্ট পরিমাণে আছে। আসানসোল নিয়ে যে কমপ্লেন ছিলো, দেখা যাচ্ছে সেইরকম কিছু নেই। 

বাকি মানুষ একটাই আতঙ্কে ভুগছে যে মেডিসিন মার্কেটে যথেষ্ট পরিমাণে নেই। কিন্তু এটা একটা পেনিক। আসানসোল পাইকারি ঔষধ মার্কেটে এখনো পর্যন্ত কোনো মেডিসিন কম নেই।আর বেশি দামে কিছু বিক্রি হচ্ছে সেইরকম কোনো তথ্য নেই আমার কাছে।

Post a Comment

0 Comments