মিষ্টির দোকান খোলার সময় পরিবর্তনের আবেদন জানালো বর্ধমান শহরের মিষ্টি ব্যবসায়ীরা

Subscribe Us

মিষ্টির দোকান খোলার সময় পরিবর্তনের আবেদন জানালো বর্ধমান শহরের মিষ্টি ব্যবসায়ীরা

মিষ্টির দোকান খোলার সময় পরিবর্তনের আবেদন করলো বর্ধমান সীতাভোগ মিহিদানা টেজারার সুরক্ষা এসোসিয়েশনের জেলা সেক্রেটারি প্রমোদ কুমার সিং। 

করোনা সংক্রমণ রুখতে ফের লক ডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।রাজ্যে রবিবার থেকে  লক ডাউন জারি হয়েছে ।রাজ্য সরকারের  লক ডাউনের নির্দেশিকায় বলা হয়েছে সকাল সাতটা থেকে বেলা দশটা পর্যন্ত খোলা থাকবে সবজী,মাছ, মাংসের বাজার।

বেলা দশটা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত খোলা থাকবে মিষ্টির দোকান।এই সময়টিকে পরিবর্তনের আবেদন জানিয়ে রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন করবেন বর্ধমান শহরের মিষ্টি ব্যবসায়ী ও বর্ধমান সীতাভোগ মিহিদানা টেজারার সুরক্ষা এসোসিয়েশন।

বর্ধমানের বি সি রোড মিষ্টি ব্যবসায়ীরা বলেন বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাজারে কোনো লোকজন থাকছেনা। রাস্তা ঘাট পুরো ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে । বাজারে লোকজন না থাকায় মিষ্টি বিক্রি নেই। 

বর্ধমান স্টেশন চত্বর এলাকার মিষ্টি ব্যবসায়ী দীপক গুপ্তা বলেন লক ডাউনের কারণে বাস অটো, টোটো সব কিছু বন্ধ হয়ে আছে। বাজারে লোকজন নেই। সকাল সাতটা থেকে দশটা পর্যন্ত একটু লোকজন থাকে, এরপর পুরো রাস্তা ঘাট ফাঁকা হয়ে যায়।যার কারণে আমাদের মিষ্টির দোকানে কোন ক্রেতা নেই। এই রকম চলতে থাকলে মিষ্টির দোকান বন্ধ করে দিতে হবে।

বর্ধমান সীতাভোগ মিহিদানা টেজারার সুরক্ষা এসোসিয়েশনের জেলা সেক্রেটারি প্রমোদ কুমার সিং,বলেন রাজ্য সরকারের ডাকা লক ডাউনকে সাধুবাদ জানাই।কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী যদি মিষ্টি ব্যবসায়ীদের জন্য যদি সময়টা পরিবর্তন করেন তাহলে ভালো হয়।

প্রমোদ সিং আরো বলেন ,লক ডাউনের কারণে রাস্তায় কোন লোকজন থাকছেনা।সকাল দশটার পর সব ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে। আমরা বর্ধমান সীতাভোগ মিহিদানা টেজারার সুরক্ষা এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে রাজ্যসরকারের কাছে আবেদন করবো সময় পরিবর্তনের জন্য। সকাল আটটা থেকে বেলা বারোটা আর বিকেল পাঁচটা থেকে সন্ধ্যে সাতটা পর্যন্ত  মিষ্টির দোকান খোলা রাখা যায় তার আবেদন করবো।

Post a Comment

0 Comments

close