Subscribe Us

তরুণীকে ফুসলিয়ে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠলো প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে

নীলেশ দাস,আসানসোল:- তরুণীকে ফুসলিয়ে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠলো প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ৩ রা জুন আসানসোল পুলিশ কমিশনারেটের অন্তর্গত হিরাপুর থানায় বার্নপুরের বৈষ্ণববাঁধ অঞ্চলে। ২২ বছর বয়সী নির্যাতিতা যুবতীর বাড়ি আসানসোলের হিরাপুরে। 

নির্যাতিতা তরুণীর পরিবারের বক্তব্য বার্নপুরের বাসিন্দা প্রসেনঞ্জিত সেনগুপ্তর বিরুদ্ধে, তাদের মেয়েকে ধর্ষণ সহ শারীরিক নির্যাতন করেছে। অন্যদিকে নির্যাতিতা যুবতীর বন্ধু রাকেশ রায় জানিয়েছেন, গত ৩ জুন বার্নপুরের পুরানো হাটের বাসিন্দা প্রসেনঞ্জিত সেনগুপ্ত বার্নপুরের একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের কাছ থেকে দুপুর ১:৩০ নাগাদ ওই যুবতীকে ফুসলিয়ে মোটরবাইকে করে মাইথনে নিয়ে যায়। আর সেখানে একটি ফাঁকা জায়গায় ওই যুবতীকে মারধরের পর শারীরিক নির্যাতন সহ ধর্ষণ করে অভিযুক্ত ওই যুবক।
পাশাপাশি একই সাথে যুবতীর শরীরে একাধিক জায়গায় ব্লেড দিয়ে চিরে দেওয়া হয়। শুধু তাই নয় ওই যুবতীকে গলায় বেল্টের ফাঁস লাগিয়ে প্রাণে মেরে ফেলার চেষ্টা করে অভিযুক্ত ওই যুবক৷ একই সাথে পরিবার বা পুলিশে এই বিষয়টি জানালে ওই যুবতী ও তার বোনকে প্রাণে মারার হুমকি দেয় অভিযুক্ত ওই যুবক। 

এরপরে সুযোগ বুঝে প্রসেনজিৎ ওই যুবতীকে তার বৈষ্ণব বাঁধের বাড়ির সামনে ফেলে দিয়ে চলে যায়। এদিকে গত ৪ জুন ওই যুবতীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে পুরো বিষয়টি বাড়িতে জানাজানি হয়ে যায়৷ আর এর পরেই পরিবারের সদস্যরা ওই যুবতীকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায় আসানসোল জেলা হাসপাতালে। পরে অভিযুক্ত যুবক প্রসেনজিৎ এর বিরুদ্ধে তারা হিরাপুর থানায় অভিযোগ দায়েক করেন৷

Post a Comment

0 Comments