ভারতকে চাপে রাখতে চীন অরুণাচল সীমান্তের কাছে বুলেট ট্রেন চালু করল

Subscribe Us

ভারতকে চাপে রাখতে চীন অরুণাচল সীমান্তের কাছে বুলেট ট্রেন চালু করল

ওয়েবডেস্ক:-শুক্রবার চীন তিব্বতের প্রত্যন্ত হিমালয় অঞ্চলে প্রথম বৈদ্যুতিন বুলেট ট্রেন (Bullet Train) চালু করেছে।অরুণাচল প্রদেশের নিকটবর্তী তিব্বতের রাজধানী লাসা থেকে নিংচির মধ্যে চলল প্রথম বৈদ্যুতিন বুলেট ট্রেনটি।আগামী ১ জুলাই চিনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি অব চিন বা CPC-র শতবর্ষ পূর্ণ হচ্ছে। তার আগেই সেদেশের সিচুয়ান-তিব্বত রেলওয়ে চালু করে দিল লাসা-নিংচি ৪৩৫.৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রেলপথ।যদিও যাত্রীবাহী পরিষেবার জন্যই এই পরিকাঠামো তৈরি বলে দাবি চিনের।

সিচুয়ান-তিব্বত রেলওয়ে এই অঞ্চলের দ্বিতীয় রেলওয়ে। এর আগে এই এলাকায় কুইনঘাই-তিব্বত রেলওয়ে চালু করেছিল বেজিং।বুলেট ট্রেনের (Bullet Train) কারণে ৪৮ ঘণ্টার যাত্রাপথ কমে দাঁড়াবে মাত্র ১৩ ঘণ্টায়। প্রতিরক্ষা বিশ্লেষকরা বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন।মনে করা হচ্ছে, লাসা-নিংচি বুলেট ট্রেন চললে মুহূর্তের নির্দেশে অরুণাচল সীমান্তে সেনাদল পাঠাতে সক্ষম হবে লালফৌজ। ফলে যুদ্ধের পরিস্থিতিতে ভারতীয় সেনার প্রতিরক্ষা সমীকরণ পালটে দিয়ে যাত্রীবাহী ট্রেনে তিব্বত থেকে বিশাল সেনাদল বুলেট ট্রেনে পাঠিয়ে দিতে পারে চিনা ফৌজ।

নভেম্বর মাসে, চীনা রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং তিব্বতের (Tibet) সিচুয়ান প্রদেশ এবং নিনিচিকে সংযুক্ত করে নতুন রেলপথ প্রকল্পটি নির্মাণের কাজ দ্রুত করার জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন, বলেছিল যে নতুন রেললাইন সীমান্তের স্থিতিশীলতা রক্ষায় মূল ভূমিকা পালন করবে। সিচুয়ান-তিব্বত রেলপথ সিচুয়ান প্রদেশের রাজধানী চেঙ্গদু থেকে শুরু হয়ে ইয়াহান হয়ে তিব্বতে প্রবেশ করে কমদো হয়ে চেঙ্গদু থেকে লহসার যাত্রা ৪৮  ঘন্টা থেকে কমে ১৩ ঘন্টা হয়ে যাবে।

Post a Comment

0 Comments

close