বর্ধমান শহরের পর এবার খণ্ডঘোষের বিজেপি কর্মীকে ঘরে ফেরানোর পর, হামলা ও মারধরের অভিযোগ উঠলো শাসকদলের বিরুদ্ধে

Subscribe Us

বর্ধমান শহরের পর এবার খণ্ডঘোষের বিজেপি কর্মীকে ঘরে ফেরানোর পর, হামলা ও মারধরের অভিযোগ উঠলো শাসকদলের বিরুদ্ধে

বর্ধমান শহরের পর এবার খণ্ডঘোষের পুলিশ বিজেপি কর্মীকে ঘরে ফেরানোর পর হামলা ও মারধরের অভিযোগ উঠলো শাসকদলের বিরুদ্ধে।খণ্ডঘোষের উগরিদের বাসিন্দা বিজেপি কর্মী রাখী রায় নির্বাচনে ফল ঘোষণার পর থেকেই ঘরছাড়া ছিলেন। তারপর ১৮ জুন খণ্ডঘোষ থানার পুলিশ তাঁকে বাড়িতে ঢোকানোর ব্যবস্থা করে।কিন্তু সোমবার তার বাড়িতে হামলা চালায় তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা।তাকে বিবস্ত্র করে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। তার স্বামীকেও মারধর করা হয়।বাড়িতে ভাঙচুর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়।তারপর থেকেই দুই শিশু সন্তান সহ স্বামীকে নিয়ে জেলা বিজেপির কার্যালয়ে আশ্রয় নেন আক্রান্ত বিজেপি কর্মী রাখী রায়।

এই বিষয়ে বিজেপির আইনজীবী সেলের নেতা সুব্রত কর্মকার বলেন,ভোট পরবর্তী হিংসায় গোটা রাজ্যে বিজেপির বহু কর্মী সমর্থক ঘরছাড়া। এই নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা হয়।মামলায় হাইকোর্ট রায় দেয় প্রত্যেকেই তাদের নিজের বাড়িতে ফিরিয়ে দিতে হবে।সেই নির্দেশ মত বাড়ি ফেরানোর কাজ শুরু হয় পূর্ব বর্ধমান সহ গোটা রাজ্যে।কিন্তু পুলিশ প্রশাসন বিজেপি কর্মীদের বাড়ি ফিরিয়ে দিলেও শাসকদলের নেতারা ফের তাদের মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে এমনটাই অভিযোগ বিজেপি কর্মীদের। 

রাজ্য তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র দেবু টুডু বলেন, রাজ্যে তৃতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় এসেছেন। তিনি নির্দেশ দিয়েছেন কেউ যেন আক্রান্ত না হয়।কেউ যেন ঘরছাড়া না থাকে।অনেক বিজেপি কর্মী সমর্থক ভোটের ফল ঘোষণার পর ভয় বাড়ি ছাড়া হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের বাড়িতে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তবে কোথায় যদি কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা হয়ে থাকে তার বিরুদ্ধে দল ব্যবস্থা নেবে।

Post a Comment

0 Comments

close