বিজেপি বুথ সভাপতিকে মারধরের অভিযোগ উঠলো শাসক দলের বিরুদ্ধে,অভিযোগ অস্বীকার শাসক দলের

Subscribe Us

বিজেপি বুথ সভাপতিকে মারধরের অভিযোগ উঠলো শাসক দলের বিরুদ্ধে,অভিযোগ অস্বীকার শাসক দলের

ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত পূর্ব বর্ধমানে। সাগর পণ্ডিত  নামে এক বিজেপি বুথ সভাপতিকে মারধরের অভিযোগ উঠলো তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে।পূর্ব বর্ধমানের বৈকন্ঠপুর পঞ্চায়েতের শ্রীরামপুর এলাকার ঘটনা। 

নির্বাচনে ফল ঘোষণা হবার পর থেকেই গ্রাম ছাড়া ছিলেন শ্রীরামপুর গ্রামে বিজেপির  বুথ সভাপতি সাগর পণ্ডিত । কয়েকদিন আগে জেলা বিজেপির পক্ষ থেকে পুলিশের কাছে আবেদন করা হয়েছিল। সেই মত ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের পুলিশ ঘরে ফেরানোর ব্যবস্থা করছিল। 

দিন কয়েক আগে সাগর পণ্ডিত গ্রামে ফিরে আসে। পেশায় বেসরকারি সংস্থার কর্মী সাগর বাবু গতকাল সকাল দশটা নাগাদ যখন কাজে যাচ্ছিলেন, সেই সময় স্থানীয় তৃণমূল নেতা বিমান ঘোষ গ্রাম থেকে কিছুটা দূরে পাল্লা মোড়ে তার রাস্তা আটকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে ও তাকে  মারধর করে বলে অভিযোগ।  

সাগর বাবুর কাছ থেকে হেলমেট কেড়ে নিয়ে সেই হেলমেট দিয়ে তার মাথায় সজোরে আঘাত করলে সেখানেই সজ্ঞা হারান তিনি। পরে স্থানীয় মানুষজন বিজেপি পার্টি অফিসে সাগর বাবুকে পৌঁছে দিলে দলীয় কর্মীরা তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা করায়। 

সাগর বাবুর অভিযোগ, শ্রীরামপুর গ্রামে বিজেপি অনেক ভোটে এগিয়ে রয়েছে সেই রাগ থেকেই আমার উপর এই আক্রমণ। তিনি এবিষয়ে বর্ধমান থানায় বিমান ঘোষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

বিজেপির বর্ধমান সদর জেলা সম্পাদক শ্যামল রায় জানান, নির্বাচনের ফল ঘোষণা হবার পর থেকেই দিকে দিকে আমাদের কর্মীরা ঘরছাড়া ছিল। তবে প্রসাশনিক তৎপরতায় আমাদের কর্মীদের ঘরে ফেরানোর একটা প্রক্রিয়া চলছে। ঘরে ফিরে আসার পর যদি এভাবে তাদের মারধর করা হয় তাহলে আমরাও প্রতিরোধের রাস্তায় যাব।

বৈকন্ঠপুর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য হেমন্ত খাঁ অবশ্য জানিয়েছে এই ঘটনার সাথে তৃণমূল কোনো ভাবেই জড়িত নয়। ব্যক্তিগত কোনো কারণে কোথাও কিছু ঘটে থাকতে পারে। এই গ্রামে শান্তি বজায় আছে, গ্রামের কোথাও কোনো অশান্তি নেই।

Post a Comment

0 Comments

close