Subscribe Us

ভাগ্নি কে নৃশংস ভাবে খুন করার অভিযোগ উঠল নিজের মামার বিরুদ্ধে

নিজের মামার হাতে নৃশংস ভাবে খুন হল কিশোরী ভাগ্নি,অভিযোগ গ্রামবাসীদের।মৃত কিশোরীর নাম পায়েল খাতুন (১৭)। ঘটনা পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষের লতিফপুর গ্রামের।এই ঘটনার জেরে গোটা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।মৃত কিশোরী  মায়ের সঙ্গে মামা বাড়িতে থাকতো।কিশোরীর মা স্বামী পরিত্যক্তা। 

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, মানসিক সমস্যা ছিল। প্রায়শই পায়েল অন্যের বাড়িতে থাকতো।গত কয়েকদিন বাইরে থাকার পর কিশোরী বাড়ি এলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মামা তাকে মারধর করে।তারপর গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে দেয়।ঘটনার সময় পায়েলের মা বাড়িতে ছিলেন না।

প্রতিবেশীরা জানান পায়েলকে খুন করার সময় মৃতার দিদিমা ও মামী মামাকে সাহায্যে করে।পাড়ার লোকজন ঘটনার কথা জানতে পেরে পুলিশকে খবর দেয়।ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বর্ধমান সদর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক আমিনুল ইসলাম খান,সি আই সি রজত কান্তি পাল ওসি প্রসেনজিৎ দত্ত। 

ঘটনার প্রাথমিক তদন্ত করে মৃতার দিদিমা কুর্সিয়া বেগম,মামী পারভীন বেগমকে আটক করে খণ্ডঘোষ থানার পুলিশ।মামা শেখ জিয়ারুল রহমান ঘটনার পরই গা ঢাকা দেয়।পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বর্ধমান মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠিয়েছে।দোষীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির জন্য এলাকার লোকজন সরব হয়েছেন।

Post a Comment

0 Comments