আধঘন্টার মধ্যে ফের ভোলবদল সাংসদ সুনীল মণ্ডলের

Subscribe Us

আধঘন্টার মধ্যে ফের ভোলবদল সাংসদ সুনীল মণ্ডলের

আধ ঘণ্টার মধ্যে আবার সাংবাদিকদের জানালেন তিনি এখনো সেভাবে নতুন করে চিন্তাভাবনা করেন নি। তবে একইসঙ্গে তথাগত রায়ের কথায় যে তিনি ক্ষুব্ধ তা গোপন করেন নি। তার মতে কোথাও একটা সমস্যা রয়েছে। তাই তৃণমূল থেকে বিজেপি যাওয়াদের পুরনোরা হয়ত ঠিক মেনে নিতে পারেন নি। নতুন তৃণমূল সরকারকে চলতে দেওয়া উচিত। ৩৫৬ ধারা নিয়ে যারা বেশি নাড়াচাড়া করতে চাইছেন সেটা ঠিক হচ্ছেনা। একইসাথে তিনি জানান, শুভেন্দুকে নিয়ে তার নতুন কিছু বলার নেই।মুকুল রায়ের সিদ্ধান্ত তার নিজের। 

তবে একশো আশি ডিগ্রি ঘুরে বলেন,তিনি তো এখনো তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ।  তবে বিজেপিতে কি কোনো আশা নিয়ে গেছিলেন? তিনি বলেন কোনো আশা নিয়ে তিনি সেখানে যান নি। তৃণমূল থেকে তাকে আবার ডাকা হলে তিনি কি যাবেন? তিনি বলেন,সেরকম পরিস্থিতি হলে দেখা যাবে।

বিজেপির তরফে কি কোন ঘাটতি ছিল। এ নিয়েও পরে বিশদে বলবেন বলে তিনি জানান। দিল্লির নেতাদের নিয়ে তার কোনও সমস্যা না থাকলে প্রবাসী নেতাদের ভাষাগত সমস্যা মেটে নি।আরো বলেন তিনি, দুই তৃতীয়াংশ মানুষের বেশি সমর্থন নিয়ে ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল। সেটাকে সম্মান জানাতে চান তিনি। একজন তপশিলী নেতা ও সাংসদ হিসেবে তার এটা বক্তব্য।  

তিনি কি বেসুরো?  সুনীল সরাসরি কিছু বলেন নি। আর কোনো বেসুরোর সাথে তার কথা হয়েছে কী না তাও বলতে চাননি।ফরোয়ার্ড ব্লক থেকে জিতে বিধায়ক হয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে এসে  দু দুবার সাংসদ হন সুনীল মন্ডল। এরপরে শুভেন্দু অধিকারীর সাথে যোগ দেন বিজেপিতে। ভোটের আগে এক আধিকারিককে ধমক দিয়ে খবরেও আসেন। ভোটের ফল বেরোতেই আবার সুরে বাজছেন না সুনীল। তাই একদিনে দুবার বয়ানবদল।রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে বারবার দল বদলে তিনি এখন 'ত্রিশঙ্কু।'

Post a Comment

0 Comments

close