ভেষজ উদ্ভিদের বাগান ও মিশ্র চাষে স্বাবলম্বী হচ্ছে পূর্ব বর্ধমানের গলসি

Subscribe Us

ভেষজ উদ্ভিদের বাগান ও মিশ্র চাষে স্বাবলম্বী হচ্ছে পূর্ব বর্ধমানের গলসি

গলসি ১ নম্বর ব্লকের বুদবুদ কিষান মাণ্ডিতে ভেষজ উদ্ভিদের বাগান তৈরী করে সাবলম্বী হচ্ছে গলসি ১নম্বর পঞ্চায়েত সমিতি। এক ছাতার তলায় লুপ্তপ্রায় ভেষজ উদ্ভিদের পাশে শুরু হয়েছে শাক সবজী ও ফল ফুলের চাষ। তার সঙ্গেই চলছে মাছ চাষ ও হাস মুরগি পালন। 

কৃষাণ মাণ্ডির পাশে অবহেলিত জায়গাকে কাজে লাগিয়ে পঞ্চায়েত সমিতির আয়ের উৎস বাড়াতে এমনই উদ্দ্যোগ নেওয়া হয়েছে। তারজন্য মাণ্ডির একপাশে খনন করা হয়েছে একটি ছোট জলাশয়। সেই জলাশয়ে বেশ কয়েকটি প্রজাতির মাছের চাষও করা হচ্ছে। তার সঙ্গে জলাশয়ের এক পাড়ে ডিম উৎপাদনের জন্য পালন করা হচ্ছে ক্যাম্বেল হাঁস ও মুরগী। 

জলাশয়কে কেন্দ্র করেই নেওয়া হয়েছে এমন উদ্দ্যোগ। সুস্বাস্থ্যর কথা মাথায় রেখে জৈব্য পদ্ধতিকে গুরুত্ব দিয়ে ওই চাষ শুরু করা হয়েছে। ব্লকের অঙ্গনওয়ারী সেন্টারের শিশুদের ও স্কুলের মিড ডে মিলের ছাত্রছাত্রীদের পুষ্টির যোগান দিতেই ওই মিশ্র চাষের শুরু করেছে পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি অনুপ চ্যাটার্জ্জী।

একদিকে পরিত্যক্ত জায়গাকে কৃষিকাজের উপযোগী করে, অন্যদিকে এক ছাতার তলায় বিভিন্ন জিনিসের চাষ করে সরকারের আয় বাড়ানো হচ্ছে। তার সঙ্গে  সংরক্ষিত হচ্ছে প্রাচীন লুপ্তপ্রায় অমূল্য ভেষজ গাছ। যেখানে, সর্পগন্ধা, জষ্টিমধু, শিবজটা, কৃষ্ণ তুলসী, হিং, জয়ন্তী, বহেরা, গিলয়, ড্রাগনফুট, থানকুনি, সহ পঞ্চাশটি প্রজাতির ভেষজ উদ্ভিদের চাষ করা হচ্ছে। 

মরশুমি শাক সবজীর সঙ্গে গাছে ফলছে আম, জাম, কুল বেদনা, পেপে লেবু সহ বেশকিছু। উৎপাদিত ফসলের পাশাপাশি  চারা গাছ বিক্রি করে বেশ মুনাফা লাভ করছে পঞ্চায়েত সমিতি। যা কিনতে বিভিন্ন জায়গার মানুষ ভিড় করছেন  কৃষাণ মাণ্ডিতে।  

Post a Comment

0 Comments

close