নিম্ন মানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগে ও স্থানীয়দের কাজের দাবীতে ঢালাই রাস্তা তৈরীর কাজ বন্ধ করে দিল গ্রামবাসীরা

Subscribe Us

নিম্ন মানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগে ও স্থানীয়দের কাজের দাবীতে ঢালাই রাস্তা তৈরীর কাজ বন্ধ করে দিল গ্রামবাসীরা

তনুশ্রী চৌধুরী,কাঁকসা:- কাঁকসার আমলাজোড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত মোবারকগঞ্জ গ্রামে ঢোকার রাস্তা দীর্ঘদিন মাটির তৈরী হয়ে পড়েছিল।মাস তিনেক আগে এই মাটির তৈরী রাস্তার পাকা করার  কাজ শুরু হয়,কাজও প্রায় শেষের মুখে,কিন্তু নিম্ন মানের সামগ্রী দিয়ে ঢালাই রাস্তার কাজ করার অভিযোগে ও স্থানীয়দের কাজের দাবীতে এবার গ্রামবাসীরা এক হয়ে পাকা রাস্তা তৈরীর কাজ বন্ধ করে দিল।গ্রামবাদীদের অভিযোগ,নিম্ন মানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তার কাজ হচ্ছে,রাস্তার কিছু অংশে এমন অবস্থা তৈরী হয়েছে যে যেকোনো সময় ফের এই রাস্তা বেহাল হয়ে পড়বে,তাই বাধ্য হয়ে শুক্রবার রাস্তা তৈরীর কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন তারা।

স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যর স্বামী জানিয়েছেন,স্বচ্ছ ভাবে কাজ হচ্ছে না।একদিকে নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ হচ্ছে তার উপরে বড় গাড়ি পারাপার করলে আগামীদিনে রাস্তা বেহাল হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আমলাজোড়া গ্রাম পঞ্চায়েতকে এই বিষয়ে জানিয়েও কোনো লাভ হয় নি।তাই তারা বাধ্য হয়ে কাজ বন্ধ করেছেন।

তাদের দাবি স্বচ্ছ ভাবে কাজ করা হোক এবং ১০০দিনের আওতায় ১০০ দিনের শ্রমিক নিয়ে কাজ করা হলে গ্রামের বেকার মানুষদের সুবিধা হয়।কারণ লকডাউনে গ্রামের বহু মানুষ কর্মহীন।অন্যদিকে ঠিকাদারি সংস্থার আধিকারিকরা জানিয়েছেন,গ্রামবাসীদের বিক্ষোভের জন্য কাজ বন্ধ হয়ে গেছে।

কাঁকসা ব্লকের তৃণমূলের ব্লক সভাপতি দেবদাস বক্সী জানিয়েছেন গ্রামের মানুষের দীর্ঘদিনের আবেদনের ছিলো গ্রামের রাস্তার। উন্নয়নের কাজ আটকে সমস্যার সমাধান হয় না।এই বিষয়টি প্রশাসনকে নিয়ে গ্রামবাসীদের সাথে বসে দ্রুত সমস্যা সমাধান করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

'যতদিন না পর্যন্ত একশো দিনের কাজের কর্মীদের দিয়ে কাজ না করা হচ্ছে ততদিন এই দুর্নীতি বন্ধ হবে না।অবিলম্বে এই একশো দিনের স্থানীয় লোকজনদের দিয়ে কাজ করানো হোক' এই দাবীতে সরব হয়েছেন গ্রামবাসীরা।

Post a Comment

0 Comments

close