Subscribe Us

সংযুক্ত কিষান মোর্চার ডাকা ধর্মঘটের মিশ্র প্রভাব লক্ষ্য করা গেলো আসানসোল শিল্পাঞ্চলে

নীলেশ দাস, আসানসোল:- সংযুক্ত কিষান মোর্চা ১২ ঘণ্টার ভারত বনধ এর ডাক। ১৯টি দল সমর্থন করেছে ভারত বনধ। ২৭ সেপ্টেম্বর সারা ভারত ধর্মঘট যে ডাক দেওয়া হয়েছিল তার মিশ্র প্রভাব লক্ষ্য করা গেলো আসানসোল শিল্পাঞ্চলে। সোমবার সকাল থেকে বিভিন্ন বেসরকারি রুটের বাস চলাচল করতেও দেখা যায়। যানবাহন চলাচল করলেও দোকান পাট বনধ রয়েছে। এক দুটো খোলা থাকলেও জোর করে বনধ করে দেওয়া হয়।

অন্যদিকে বামফ্রন্টের পক্ষ থেকে এক মিছিলের আয়োজন করা হয় আসানসোলের রবীন্দ্র ভবন সংলগ্ন বিএনআর মোড় থেকে। বিএনআর মোড় থেকে একটি মিছিল শুরু করে আসানসোল সিটি বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে পৌঁছায়। সেই মিছিল ঘুরে  বি এন আর মোড় এসে জি টি রোড অবরোধ করে বামফ্রন্ট। প্রায় ৩০ মিনিটের মতো জি টি রোড অবরোধ করার পর নিজেরাই অবরোধ তুলে নেয় বনধ সমর্থনকারীরা। যদিও এ দিনে রাস্তায় পুলিশ ছিল যথেষ্ট।

সংযুক্ত মোর্চার ১২ঘণ্টার ভারত বনধ হলেও বেলা গোড়াতেই সংযুক্ত কিষান মোর্চা বি এন আর মোড়ে একটি মঞ্চ করে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে ধিক্কার জানাই। পাশাপাশি বি এন আর মোড় অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় বিক্ষোভকারীরা। অবরোধের কারণে যানজট বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হলেও পরে বিশাল পুলিশ বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়। তবে ভারত বনধ এ সেইরকম প্রভাব পড়েনি আসানসোল শিল্পাঞ্চলে।

এদিন সংযুক্ত কিষান মোর্চা,প্রগ্রেসিভ ফার্মার জয়েন্ট সেক্রেটারি পশ্চিম বাংলা তথা বার্নপুর গুরুদুয়ারা প্রবন্ধক কমিটির সেক্রেটারি,সুরেন্দ্র সিং বলেন,কেন্দ্র সরকারের তিনটি কৃষি কালো আইন বাতিল করার দাবিতে ১২ ঘণ্টার ভারত বনধ করতে রাস্তায় নামে সংযুক্ত কিষান মোর্চা পশ্চিম বাংলা।

পাশাপাশি দিল্লিতে কিষান মোর্চার আন্দোলন প্রায় বছর খানেক হতে চললো।সেই আন্দোলনে হাজার খানেক কিষান শহীদ হয়েছে। তাদের বক্তব্য হাজার খানেক কিষান শহীদ হলেও কিন্তু লোকসভায় এক মিনিটের জন্যেও শহীদ কিষানদের জন্যে শোক সভা পালন করা হয়নি। এইটাই আমাদের দুঃখ। আজকে দিনে রাজ্য সড়ক অবরোধ করে এই বার্তা পাঠাতে চাই কেন্দ্র সরকারকে। বনধ কে সমর্থন করলেও, ধাপে ধাপে অবরোধ করবো। আমরা চাইবো মানুষের অসুবিধা না হয়।

Post a Comment

0 Comments