Subscribe Us

শান্তিনিকেতনে আসতে চলেছে ইউনেস্কোর প্রতিনিধি দল,শুরু হলো শান্তিনিকেতনের ঐতিহ্যবাহী স্থাপত্য গুলি সংস্কারের কাজ


শুভময় পাত্র, বোলপুর:- শান্তিনিকেতনে (SantiNiketan)আসতে চলেছে ইউনেস্কোর প্রতিনিধি দল(UNESCO delegation), সেই কারণেই তড়িঘড়ি শুরু হলো শান্তিনিকেতনের ঐতিহ্যবাহী স্থাপত্য গুলি সংস্কারের কাজ। (Visva Bharati) বিশ্বভারতী সূত্রে খবর, চলতি মাসের শেষে বা আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহেই শান্তিনিকেতনে আসতে চলেছে ইউনেস্কোর প্রতিনিধিদল। আর সেই কারণে ইতিমধ্যেই শান্তিনিকেতনে এসে পৌঁছেছে ভারতীয় পুরাতত্ত্ব বিভাগের আধিকারিকরা। 

উপাসনা গৃহ, শান্তিনিকেতন বাড়ি, শ্যামলী সহ মোট ২৩ টি রবীন্দ্র ঐতিহ্যবাহী স্থাপত্যকে সংস্কার করা হবে পুরাতত্ত্ব বিভাগের তত্ত্বাবধানে। বিশ্বভারতী ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট হিসেবে গণ্য হতে পারে তাই এই কাজ চলছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞ মহল। স্বাভাবিকভাবেই বিশ্বভারতীর এই ঐতিহ্য যাতে বজায় থাকে তার জন্য খুশি আশ্রমিকরা।



বিশ্বভারতী সূত্রে খবর, শেষ  ২০০৯ সালে সংস্কার করা হয়েছিল উপাসনা গৃহের। এরপর আবার সেই সংস্কারের কাজ শুরু হলো। তবে এই কাজ সম্পর্কে কোনো কথা বলেনি বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। এমনকি, এই সংস্কারের আর্থিক বরাদ্দ কতো টাকা তাও জানা যাইনি। 

যদিও এ বিষয়ে শান্তিনিকেতনের প্রবীণ আশ্রমিক কল্পিকা মুখোপাধ্যায় অবশ্য বলেছেন, যেভাবে বিশ্বভারতীর তথা শান্তিনিকেতনের পুরনো ঐতিহ্য গুলি আস্তে আস্তে ধ্বংসের মুখে পতিত হচ্ছে তাতে যদি ইউনেস্কোর প্রতিনিধিদল এগুলি এসে সংরক্ষণের বিশেষ ব্যবস্থা নেই তাহলে হয়তো বিশ্বের বুকে বিশ্বভারতীর যে খ্যাতি, আবার হয়তো সকলের কাছে গিয়ে পৌঁছবে। 

আরোপড়ুন:- বেআইনি ভাবে মদ বিক্রির অভিযোগে দুই ব্যক্তি কে গ্রেফতার করলো কাঁকসা থানার পুলিশ

এটা শুধুমাত্র বাংলা বা বাঙালির ঐতিহ্য বা সম্মানের সঙ্গে জড়িত নয়, এটা সারা বিশ্বের সম্মান জড়িত রয়েছে এই বিশ্বভারতী কে ঘিরে। তাই এই দ্বিতীয়বারের ইউনেস্কোর প্রতিনিধিদলের বিবেচনার উপরেই হয়তো নির্ভর করবে বিশ্বভারতী ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট এর অন্তর্ভুক্ত হবে কিনা।

Post a Comment

0 Comments