Subscribe Us

অজয়ে বাঁধ ভেঙে হু হু করে জল ঢুকতে শুরু করেছে পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রাম ও মঙ্গলকোটের বেশকিছু এলাকায়, জলমগ্ন বীরভূমেরও বেশকিছু গ্রাম


নিজস্ব প্রতিনিধি,পূর্ব বর্ধমান ও শুভময় পাত্র,বীরভূম:- দামোদর ও অজয় নদের জল বিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে।পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের  সাঁতলা ও ধুকুর গ্রামের কাছে অজয়ে বাঁধ ভেঙে হু হু করে জল ঢুকতে শুরু করেছে। অন্যদিকে মঙ্গলকোটের কুমারপুর গ্রামে অজয়ের বাঁধ ভেঙে প্লাবিত জমির ধান। ভেদিয়া পঞ্চায়েতের সাঁতলা ও ধুকুর গ্রাম সহ আশপাশের বেশ কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দারা বাড়িঘর ছেড়ে উঁচু জায়গায় আশ্রয় নিয়েছে।

দুদিনের টানা বৃষ্টিতে প্লাবিত বর্ধমান জেলার সাতলা গ্রাম। গত দু'দিন ধরে যে টানা বৃষ্টি তারই ফলে হিংলো ড্যাম ফুলে-ফেঁপে ওঠা ই জল ছাড়ার ফলে একরকম অন্য রূপ নিয়েছে অজয় নদ। আর এই কারনেই বীরভূমের বোলপুর সংলগ্ন ভেদিরার পাশে নদী তীরবর্তী সাতলা গ্রামের বাঁধ ভেঙে যাওয়ায় প্লাবিত হয়েছে গোটা গ্রাম। 

প্রশাসন থেকে সর্তকতা জারি করা হলেও গভীর রাতে জল ছাড়াই অনেকেই আটকে পড়ে গ্রামের মধ্যে। বেশি পরিমাণে জল বাড়ার সাথে সাথে রীতিমতো আতঙ্কে রয়েছে ভেদিয়া গ্রামের মানুষজন। প্রশাসন ও পঞ্চায়েত থেকে স্পিড বোর্ড নামানো হয়েছে উদ্ধারকার্য চালানোর জন্য। নিরাপদ জায়গায় গ্রামবাসীদের নিয়ে আসা ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে প্রশাসনিক তরফ থেকে। 



একইভাবে বীরভূমের বাসাপাড়া-র কাছে সুন্দরপুরে নদী তীরবর্তী গ্রামে অজয় নদএর বাঁধ ভাঙায় বেশকিছু গ্রাম এখন জলমগ্ন। জলমগ্ন হয়েছে বাসাপাড়া পুলিশ ক্যাম্প থেকে শুরু করে বাসাপাড়া পঞ্চায়েত ও স্কুল। গ্রামবাসীরা নৌকা নিয়ে উদ্ধারকার্য ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছেন। স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রশাসন গ্রামবাসীদের কে নিরাপদ আশ্রয় নিয়ে আসার চেষ্টা করলেও এখনো অনেক মানুষই আটকে আছে গ্রামগুলিতে। যতক্ষণ না অজয় নদর জল কমছে ততক্ষণ পুরোপুরিভাবে কিছু বলতে পারছেন না জেলা প্রশাসন।

Post a Comment

0 Comments