Subscribe Us

দুর্গাপুজোর আনন্দের বদলে ধসের আতঙ্কে খনি অঞ্চলে


সোমনাথ মুখার্জি, অন্ডাল  :- বাঙালির সব থেকে বড় উৎসব দুর্গাপূজা ,আজ দুর্গাপুজোর আনন্দে আনন্দিত আপামর  বাঙালি । এ সময় পুজোর আনন্দে সমস্ত দেশবাসী আত্মহারা । ঠিক সেই সময়ই ধসের আতঙ্কে জিনিসপত্র নিয়ে ঘর ছাড়তে বাধ্য অন্ডালের মুকুন্দপুর সাত নম্বর কোলিয়ারি  এলাকার বাসিন্দারা ।

ধস হয় একাধিক আবাসনে,ও  ফাটল ধরার ঘটনায় আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায় । বড় দুর্ঘটনা এড়াতে অন্যত্র সরানো হলো আবাসিকদের । মুকুন্দপুর 7 নম্বর কোলিয়ারি আবাসন এলাকায় ঘটনাটি ঘটে রবিবার ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতে ইসিএলের কাজোরা এরিয়ার মুকুন্দপুর 7 নম্বর কোলিয়ারি আবাসন এলাকায় কয়েকটি জায়গায় ধসের ফলে মাটি বসে যায় । বেশ কয়েকটি আবাসনে দেখা দেয় ফাটল । রবিবার ভোর রাতে ঘটনাটি বড় আকার নেয় । একাধিক আবাসনের দেওয়াল, ছাদ ফেটে যায় । যা নিয়ে আতঙ্ক ছড়ায় আবাসিকদের মধ্যে । 

রবিবার সকালে ঘটনাস্থলে আসে ইসিএলের আধিকারিক ও নিরাপত্তারক্ষীরা । আবাসিকদের দ্রুত আবাসন খালি করার অনুরোধ জানান তারা । প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে এলাকা ছাড়তে হুড়োহুড়ি পড়ে যায় আবাসিকদের মধ্যে । 

স্থানীয়রা জানান ইসিএলের এই আবাসন গুলি পরিতক্ত । আরজি জানিও বিকল্প আবাসন না পাওয়ার কারণে বাধ্য হয়ে বেশ কয়েকটি খনি কর্মীর পরিবার ও কিছু বহিরাগতরা আবাসন গুলিতে থাকেন । ইসিএল কর্মী আবাসিক-রা জানান কোয়াটার গুলি বিপদজনক অবস্থায় রয়েছে । বিকল্প কোয়ার্টারের আবেদন জানিও না পাওয়ায় এখানে থাকতে বাধ্য হচ্ছি আমরা। নতুন কোয়ার্টার পাওয়ার জন্য শ্রমিক সংগঠনের নেতারা টাকা চাইছে বলে অভিযোগ করেন তারা ।

শ্রমিক নেতা সাধন মাঝি (kksc) সত্যেন্দ্র যাদব-রা (Hms) ঘুষ চাওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন অভিযোগ মিথ্যা । প্রমাণ থাকলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন তারা । মুকুন্দপুর কোলিয়ারির ম্যানেজার বিজয় চৌধুরী জানান, আবাসন গুলি বহুদিন আগেই পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে । সেগুলি দখল করে রয়েছে বেশকিছু পরিবার । 

বিপদ এড়াতে আবাসনে থাকা খনি কর্মীদের জন্য বিকল্প আবাসনের ব্যবস্থা করা হয়েছে । দখল করে থাকা অন্য আবাসিকদের আপাতত সংস্থার গেস্টহাউসে থাকার ব্যবস্থা হয়েছে বলে জানান তিনি । ঘটনাটি ঘিরে এলাকায় তৈরি হয়েছে আতঙ্ক । স্থায়ী পূনর্বাসনের দাবিতে সোচ্চার হয়েছে ঘরছাড়া আবাসিক-রা ।

Post a Comment

0 Comments